১৪ জুন ২০২৪, শুক্রবার, ০২:২৪:৫০ অপরাহ্ন


মা, বোনকে গুলি করে হত্যার পর ! তিন রাত লাশের সঙ্গে কাটিয়ে আত্মসমর্পণ কিশোরের
সুমাইয়া তাবাস্সুম:
  • আপডেট করা হয়েছে : ২৪-০৫-২০২৪
মা, বোনকে গুলি করে হত্যার পর ! তিন রাত লাশের সঙ্গে কাটিয়ে আত্মসমর্পণ কিশোরের মা, বোনকে গুলি করে হত্যার পর ! তিন রাত লাশের সঙ্গে কাটিয়ে আত্মসমর্পণ কিশোরের


শিশু-কিশোরদের মধ্যে স্মার্টফোনের নেশা মানসিক রোগের আকার ধারণ করছে। এই বিষয়ে বারবার সতর্ক করছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। এবার সেই নেশার ভয়ংকর রূপ দেখল নেইমারের দেশ ব্রাজিল। ১৬ বছর কিশোর গুলি করে হত্যা করল নিজের মা, বাবা এবং বোনকে। তাঁর থেকে স্মার্টফোন কেড়ে নেওয়ায় মেজাজ হারিয়ে গোটা পরিবারকে শেষ করে দিল সে। হত্যাকাণ্ড শুক্রবার ঘটলেও তিন রাত তিন লাশের সঙ্গে কাটিয়ে সোমবার পুলিশ ডেকে আত্মসমর্পণ করে কিশোর।

দক্ষিণ আমেরিকার দেশটির পুলিশের দাবি, শুক্রবার সাও পাওলো শহরের একটি বাড়িতে ঘটেছে হত্যাকাণ্ড। অভিযুক্ত কিশোর পালিত সন্তান। ঘটনার দিন সকালে অতিরিক্ত ফোনের ব্যবহার নিয়ে মা-বাবার সঙ্গে বচসা হয়েছিল তার। তার থেকে মোবাইল ফোনটিও কেড়ে নেওয়া হয়েছিল। কিছুক্ষণ পরে অতর্কিত বাবাকে (৫৭) গুলি করে খুন করে কিশোর। বাড়ির দোতলায় গিয়ে সমবয়সি বোনকে হত্যা করে। এক ঘণ্টা বাদে মা বাড়ি ফিরলে মায়ের (৫০) উপরেও গুলি চালায়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁরও।

ভয় বা অন্য কোনও কারণে দুদিন তিনটি মৃতদেহের সঙ্গে কাটায় সে? চতুর্থ দিন সোমবার পুলিশকে গোটা ঘটনা জানিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে সে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাকে। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ। সামান্য স্মার্টফোনের জন্য মা-বাবাকে খুন নাকি মানসিক অসুখে ভুগছে কিশোর, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।