০৫ মার্চ ২০২৪, মঙ্গলবার, ০৪:৩৬:১৮ পূর্বাহ্ন


স্বাস্থ্যের উন্নতি হলেও হাসপাতাল থেকে ছুটি পাচ্ছেন না, মিঠুন চক্রবর্তী
তামান্না হাবিব নিশু :
  • আপডেট করা হয়েছে : ১১-০২-২০২৪
স্বাস্থ্যের উন্নতি হলেও হাসপাতাল থেকে ছুটি পাচ্ছেন না, মিঠুন চক্রবর্তী স্বাস্থ্যের উন্নতি হলেও হাসপাতাল থেকে ছুটি পাচ্ছেন না, মিঠুন চক্রবর্তী


স্বাস্থ্যের উন্নতি হলেও হাসপাতাল থেকে এখনই ছুটি পাচ্ছেন না মিঠুন চক্রবর্তী। রবিবার বিকেলে একটি মেডিক্যাল বুলেটিন প্রকাশ করে জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

রবিবার হাসপাতালের শয্যায় আধা শোয়া অবস্থায় থাকা মিঠুনের ছবিও প্রকাশ্যে এসেছে। তাতেও তাঁকে স্বাভাবিক ভাবেই কথা বলতে দেখা গেছে।

ব্রেনস্ট্রোকে আক্রান্ত অভিনেতাকে শনিবার কলকাতার বাইপাসের ধারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল। তার পর থেকে প্রতি মুহূর্তে তাঁর স্বাস্থ্যের দিকে নজর রেখেছে বিশেষ চিকিৎসক দল। চলছে চিকিৎসাও। মিঠুন সেই চিকিৎসায় সাড়া দিয়ে ক্রমে সুস্থ হলেও তাকে রবিবারও হাসপাতালেই থাকতে হবে বলে জানানো হয়েছে হাসপাতালের তরফে।

বিকেলের মেডিক্যাল বুলেটিনে হাসপাতাল জানিয়েছে, ‘‘মিঠুন চক্রবর্তীর স্বাস্থ্যের উন্নতি হচ্ছে। তাঁর পরিস্থিতি অনেকটাই স্বস্তিদায়ক। তিনি এখন সম্পূর্ণ সজাগ, সক্রিয়। পারিপার্শ্বিক বিষয়ে ওয়াকিবহাল।’’ যদিও অভিনেতা এখনও স্বাভাবিক খাবার খেতে পারছেন না। মেডিক্যাল বুলেটিনে বলা হয়েছে, রবিবার নরম খাবারই দেওয়া হয়েছে মিঠুনকে। তাঁর আরও শারীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষাও বাকি।

শনিবার সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে মিঠুনকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। তার প্রায় ৩২ ঘণ্টা পর প্রকাশ করা হয়েছে এই মেডিক্যাল বুলেটিন। শনিবার সকালে যখন মিঠুনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় তখন তাঁর ডান হাত-পায়ে দুর্বলতা ছিল। চিকিৎসকেরা জানিয়েছিলেন, ‘ইসকেমিক সেরিব্রোভাস্কুলার অ্যাকসিডেন্ট (স্ট্রোক) অফ ব্রেন’ হয়েছে তাঁর। একই সঙ্গে একটি সূত্রে এমনও জানা গিয়েছিল, যে রবিবারই তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হতে পারে। কিন্তু রবিবার বিকেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানালেন, রবিবার ছুটি পাচ্ছেন না অভিনেতা।

কারণ হিসাবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, মিঠুনের শারীরিক অবস্থার নিরিখে তাঁর আরও কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা করানোর পরামর্শ দিয়েছেন তাঁর চিকিৎসকেরা। সেই সব পরীক্ষা হলে তার পরেই ছুটি পাবেন অভিনেতা। আপাতত তাঁকে সম্পূর্ণ বিশ্রামে থাকতে বলা হয়েছে।

মিঠুনকে দেখতে শনিবারই হাসপাতালে গিয়েছিলেন রাজ্যের সাংসদ তথা টলিউড অভিনেতা দেব। পরে রবিবার বিকেলে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও হাসপাতালে মিঠুনকে দেখে আসেন। সৌরভের অসুস্থ মা এখন ওই একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। পরে সন্ধ্যায় মিঠুনকে দেখতে আসেন বঙ্গ বিজেপির সভাপতি সুকান্ত চৌধুরী। সেই সাক্ষাতের ছবিতেই মিঠুনকে দেখা গিয়েছে হাসপাতাল শয্যায় শুয়ে তাঁকে দেখতে আসা সুকান্ত এবং তাঁর সঙ্গীদের সঙ্গে কথা বলতে।

টলিউড অভিনেতা তথা বিধায়ক সোহম চক্রবর্তীর প্রযোজনায় ‘শাস্ত্রী’ ছবির শুটিং করতে কলকাতায় এসেছিলেন মিঠুন। শনিবার সেই শুটিং চলাকালীনই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। দেরি না করে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান সোহম। তার পরেই জানা যায় অভিনেতার ব্রেন স্ট্রোক হয়েছে।

ইতিমধ্যেই মিঠুনের মস্তিষ্কে এমআরআই-সহ বিভিন্ন শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করানো হয়েছে। নিউরোলজি, কার্ডিয়োলজি এবং গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি বিভাগের চিকিৎসকদের নিয়ে একটি মেডিক্যাল দল গঠন করা হয়েছে। সেই মেডিক্যাল দলেরই পর্যবেক্ষণে রয়েছেন মিঠুন।

তবে হাসাপাতালের তরফে মিঠুনের ব্রেনস্ট্রোকের কথা বলা হলেও মিঠুনের পুত্রবধূ মাদলসা শর্মা দাবি করেন, তিনি সুস্থ রয়েছেন। স্ট্রোকের খবর ভুয়ো বলে মন্তব্য করেন তিনি।