০৩ মার্চ ২০২৪, রবিবার, ০৫:১৬:১৭ অপরাহ্ন


যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে প্রস্তুত ৮ লাখ স্বেচ্ছাসেবী: পিয়ংইয়ং
আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৮-০৩-২০২৩
যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে প্রস্তুত ৮ লাখ স্বেচ্ছাসেবী: পিয়ংইয়ং ফাইল ফটো


যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে নাম লিখিয়েছে প্রায় ৮ লাখ উত্তর কোরীয় নাগরিক। এমনটাই দাবি করা হয়েছে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদমাধ্যম রোডং সিনমুনের এক প্রতিবেদনে। খবর রয়টার্সের।

রোডং সিনমুনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কেবল শুক্রবার (১৭ মার্চ) একদিনে প্রায় ৮ লাখ উত্তর কোরীয় শিক্ষার্থী এবং শ্রমিক যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার জন্য স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে নাম লিখিয়েছে কিংবা নিজেদের নাম পুনরায় তালিকাভুক্ত করেছে। 

দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ সামরিক মহড়ার জবাবে বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) হশং-১৭ আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালায় উত্তর কোরিয়া। তার মাত্র একদিন পর দেশটির পক্ষ থেকে এ ঘোষণা এল। 

জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে এক যুগ পর আয়োজিত ঐতিহাসিক বৈঠকের কয়েক ঘণ্টা আগেই এ পরীক্ষা চালায় উত্তর কোরিয়া। দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রটি জাপানের পশ্চিমাঞ্চলের সাগরে গিয়ে পড়েছে বলে জানা গেছে।

এ নিয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে চতুর্থবারের মতো ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাল পিয়ংইয়ং। এ ঘটনার পাল্টা জবাবে গেল পাঁচ বছরের ভেতর আয়োজিত সিউল ও ওয়াশিংটনের চলমান মহড়া অব্যাহত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ইওন সুক ইওল। তাই একইদিন মহড়া চালিয়েছে মিত্র দুই রাষ্ট্র। মহড়ায় অংশগ্রহণকারী সেনারা জানান তারা যেকোন পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত।

চলতি বছর এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাল উত্তর কোরিয়া। এর আগে ১৮ ফেব্রুয়ারি বছরের প্রথম আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে পিয়ংইংয়। আর ২০২২ সালে একই ধরনের আরও অন্তত ৯টি মিসাইল ছোড়ে কিম প্রশাসন।