৩০ মে ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ১২:০৩:০৬ পূর্বাহ্ন


মাথায় নতুন চুল গজাতে পারে ৪ উপাদান
ফারহানা জেরিন:
  • আপডেট করা হয়েছে : ২৪-০৫-২০২৩
মাথায় নতুন চুল গজাতে পারে ৪ উপাদান ফাইল ফটো


চুল নিয়ে সমস্যা কমবেশি সবারই আছে। তাই চুল টিকিয়ে রাখতে চিন্তার শেষ নেই সবারই। তবে যাদের চুল পাতলা বা টাক হয়ে গেছে, তারা নতুন গজানোর জন্যে বেশি চিন্তায় দিন কাটান।

স্বাভাবিক নিয়মে প্রতিদিন কিছু না কিছু চুল পড়বেই। তবে চুল পড়ার পাশাপাশি নতুন চুল যদি না গজায়, তখনই চুল পাতলা হতে শুরু করে। এ নতুন চুল গজানোর বিষয়টি অনেকটাই নির্ভর করছে আপনার লাইফস্টাইলের ওপর।

আপনি কী খাচ্ছেন, কীভাবে চুলের যত্ন নিচ্ছেন তার ওপর নির্ভর করে নতুন চুল গজাবে। অনেক উপকারী উপাদানও সঠিক প্রয়োগের অভাবে ক্ষতিকর হয়ে উঠতে পারে। তাই চলুন জেনে নেয়া যাক নতুন চুল গজানোর কার্যকরী ৪ উপাদানের কথা।

নিমপাতা: ত্বকের নানা সমস্যা সারাতে বেশ পরিচিত নিমপাতা। শুধু ত্বক নয়, আপনি কি জানেন? চুলের যত্নেও নিমপাতা বেশ কার্যকরী। নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে এই পাতা। এক মুঠো নিমপাতা নিয়ে এক লিটার পানিতে ফুটিয়ে নিন। এবার মিশ্রণটি ঠান্ডা করে বোতলে সংরক্ষণ করুন। শ্যাম্পু করার পর সপ্তাহে একদিন নিমের এই পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিতে হবে। মাথার ত্বকে কোনো ধরনের সংক্রমণ বা খুশকির সমস্যা থাকলে তা দূর করতে সাহায্য করবে এই পানীয়। পাশাপাশি পানীয়টি চুলের গোড়া শক্ত করবে এবং নতুন চুল গজাতে সাহায্য করবে।

পেঁয়াজের রস: পেঁয়াজের রসের ঝাঁঝালো গন্ধ বিরক্তিকর লাগলেও এটি চুল পড়া কমাতে ও নতুন চুল গজাতে কাজ করে। কয়েকটি পেঁয়াজ প্রথমে কুচি করে ভালোভাবে বেটে নিয়ে তা থেকে রস বের করে নিন। এবার এ রসের সঙ্গে নারকেল তেল মিশিয়ে তুলার সাহায্যে মাথার ত্বকে আলতো ঘষে লাগিয়ে নিন। চুলে এ রস শুকিয়ে গেলে ভালো ব্র্যান্ডের কোনো শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। সপ্তাহে ২-৩ বার ব্যবহারে চুল ও স্ক্যাল্পের অনেক সমস্যা দূর হবে। গজাবে নতুন চুলও।

মেথি: চুলের যত্নে উপকারী উপাদান মেথি। এটি নতুন চুল গজাতেও কার্যকরী ভূমিকা রাখে। পরিষ্কার পানিতে মেথি ভিজিয়ে রাখুন সারারাত। সকালে উঠে ব্লেন্ড করে নিন। এবার সেই ব্লেন্ড করা মেথি চুলে সরাসরি ব্যবহার করুন বা দই-মধুর সঙ্গে মিশিয়েও লাগাতে পারেন। শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপর কোনো শ্যাম্পু দিয়ে পরিষ্কার করে নিন।

কালোজিরা: নতুন চুল গজাতে কালো জিরাকেও ব্যবহার করতে পারেন। এরজন্য প্রথমে তা রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। এরপর গুঁড়া করে নিয়ে নারিকেল তেলের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। তেলের এই মিশ্রণটি ফুটিয়ে ঠাণ্ডা করে, কাঁচের বোতলে সংরক্ষণ করুন। এটি প্রায় দুই সপ্তাহ পর্যন্ত ভালো থাকবে। সপ্তাহে তিনদিন এটি চুলে ম্যাসাজ করে ব্যবহার করুন।


সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া