৩০ মে ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ১২:২০:৪৫ পূর্বাহ্ন


বাঘায় জান্নাতির মরদেহ উদ্ধার হলেও এখনো নিখোঁজ ঝিলিক
বাঘা প্রতিনিধি :
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৫-০৪-২০২৪
বাঘায় জান্নাতির মরদেহ উদ্ধার হলেও এখনো নিখোঁজ ঝিলিক বাঘায় জান্নাতির মরদেহ উদ্ধার হলেও এখনো নিখোঁজ ঝিলিক


রাজশাহীর বাঘায় পদ্মা নদীতে গোসলে নেমে নিখোঁজ দুই শিশুর মধ্যে একজনের মরদেহ পাওয়া গেছে। ঘটনার প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার পূর্বদিকে লক্ষ্মীনগর এলাকা থেকে স্থানীয় লোকজন জান্নাতি খাতুনের (৮) মরদেহটি উদ্ধার করেন।

নিহত জান্নাতি খাতুন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার বাংলা বাজার চর এলাকার বাসিন্দা আবুল কাশেম মণ্ডলের মেয়ে। এ ছাড়া এখনো নিখোঁজ রয়েছে চুয়াডাঙ্গার জয়দেবপুরের পাটঘাট গ্রামের মনির উদ্দিনের মেয়ে ঝিলিক খাতুন (১০)।

এর আগে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার চকরাজাপুর ইউনিয়নের মানিকের চর এলাকায় স্বজনের বিয়ের অনুষ্ঠানে এসে রোববার (১৪ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পদ্মা নদীতে গোসলে নেমে নিখোঁজ হয় জান্নাতি খাতুন ও ঝিলিক খাতুন। ঘটনার দিন রাজশাহী ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল অভিযান চালিয়ে তাদের সন্ধান পায়নি। তারা গত বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) বিয়ের অনুষ্ঠানে এসেছিল বাঘার মনিকের চরে।

এ বিষয়ে চক রাজাপুর ইউনিয়নের চৌমাদিয়া চরের দুই নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার আবদুর রহমান জানান, একজনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। এখনো এক শিশু নিখোঁজ রয়েছে। উদ্ধার হওয়া জান্নাতি খাতুনের মরদেহ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার বাংলা বাজার চর এলাকার নিজ বাড়িতে নিয়ে গিয়ে দাফন করা হয়।