১৬ এপ্রিল ২০২৪, মঙ্গলবার, ১২:৫২:২৬ পূর্বাহ্ন


সিংড়ায় নকল স্বর্ণের বার সহ প্রতারক চক্রের ২ জন গ্রেফতার
সৌরভ সোহরাব, সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি
  • আপডেট করা হয়েছে : ০১-০৪-২০২৪
সিংড়ায় নকল স্বর্ণের বার সহ প্রতারক চক্রের ২ জন গ্রেফতার সিংড়ায় নকল স্বর্ণের বার সহ প্রতারক চক্রের ২ জন গ্রেফতার


নাটোরের সিংড়ায় নকল স্বর্ণের বার ও প্রতারণা কাজে ব্যবহৃত রেজিষ্টেশন বিহীন একটি সিএনজি জব্দ সহ প্রতারক চক্রের ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মোঃ রফিকুল ইসলাম (৫৭) ও মোঃ সেরাজুল ইসলাম (৪০)। রফিকুল বগুড়ার শিবগঞ্জের সৈয়দপুর গ্রামের ফরিদ জামানের ছেলে ও সেরাজুল ইসলাম গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ গরুহাটি এলাকার শামসুল হকের ছেলে। এসময় প্রতারক চক্রের মানিক নামে আরও একজন আসামী পালিয়ে যায়।

রবিবার (৩১ মার্চ) বিকালে উপজেলার তাজপুর বাজার থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয় এবং  সোমবার (১এপ্রিল) দুপুরে  গ্রেফতারকৃত আসামীদের  প্রতারণা মামলায় বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়,  উপজেলার রামানন্দ খাজুরা ইউনিয়নের বিনগ্রামের  মোছাঃ সাহারা বেগম (৫৭)স্বামী মোঃ তাবেজ ফকির ও তাহার সাথে থাকা মোছাঃ আজিরন বেগম (৩২) স্বামী মোঃ হায়দার আলী তাহারা পবিত্র ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে কেনাকাটা করার জন্য নিজ বাড়ি হতে সিংড়া বাজারে যাওয়ার সময়   উপজেলার জামতলী বাসট্যান্ড এলাকায় যাত্রী বেশে অজ্ঞাত তিনজন ব্যক্তি সিএনজিতে উঠে। যাত্রীবেশে থাকা আসামী রফিকুল ইসলাম এর হাতে থাকা পাতলা লাল কাগজে মোড়ানো একটি লোহার পাতে স্বর্ণের রং করা একটি নকল নকল স্বর্ণের বার নিয়ে সাহারা বেগম কে বলে তাহার ছেলে বিদেশ হতে পাঠিয়েছে, এই বারটি দিয়ে আপনার অনেক গুলো ঝুমকা ও কানের দুল হবে। আপনার পুরাতন কানের দুল আমাকে দিয়ে এইটা নিয়ে যান।

পরে সাহারা বেগম তাহার কানে থাকা ৪আনা ২রতি ওজনের দুইটি পাশা যাহার মূল্য আনুমানিক ৩০ হাজার টাকা খুলে ওই প্রতারক রফিকুল কে দেয়। আসামীরা সিংড়া চলনবিল গেট এলাকায় চয়েন মোড় নামক স্থানে এসে সিএনজি যোগে পালিয়ে যায়। পরে সাহারা বেগম এর সন্দেহ হলে তাহার সাথে থাকা আজিরন কে নিয়ে আরেক টি সিএনজি যোগে প্রতারকদের ধাওয়া ও চিৎকার  করতে থাকে। পরে উপজেলার  তাজপুর বাজারে  সিংড়া থানার টহলরত  পুলিশ ও স্থানীয় লোকজনের সহায়তায়  সিএনজি টির পথরোধ করে প্রতারক রফিকুল কে সিএনজি  ও নকল স্বর্ণের বার সহ তাকে আটক করা হয়। এসময় সিএনজি তে থাকা ওপর ২জন প্রতারক সেরাজুল ও মানিক অভিনব কায়দায় পালিয়ে গেলেও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় পরে  সেরাজুল কে আটক করেন পুলিশ।

সিংড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম বলেন, গ্রেফতারকৃত ও পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে। পলাতক আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।