২৫ Jul ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ১০:২৯:২১ পূর্বাহ্ন


আরবিসহ সব বিদেশি ভাষা নিষিদ্ধ করল ইরান
আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৮-১০-২০২৩
আরবিসহ সব বিদেশি ভাষা নিষিদ্ধ করল ইরান


কিন্ডারগার্টেন ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ইংরেজি, আরবিসহ সব বিদেশি ভাষা শিক্ষা নিষিদ্ধ করেছে ইরান। মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম ইরনা এ তথ্য জানিয়েছে।

ইরানের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা মাসুদ তেহরানি-ফারজাদ বলেন, 

কিন্ডারগার্টেন, নার্সারি স্কুল ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদেশি ভাষা শেখানো নিষিদ্ধ। কারণ এই বয়সে শিশুর ইরানি পরিচয় তৈরি হয়।
 
এর আগে ২০১৮ সালে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ইংরেজি ভাষা শিক্ষা নিষিদ্ধ করেছিল ইরান, যদিও মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ভাষাটি পড়ানো হয়।
 
তেহরানি-ফারজাদ বলেন,  বিদেশি ভাষা শিক্ষার ওপর নিষেধাজ্ঞা শুধু ইংরেজির ওপর নয়, আরবিসহ অন্য ভাষাগুলোর সঙ্গেও সম্পর্কিত।
 
ফারসি ইরানের একমাত্র সরকারি ভাষা, যা আরবি থেকে দৃঢ়ভাবে প্রভাবিত হলেও ফরাসি ও ইংরেজি থেকেও ধার করে।
 
গত বছরের জুনে ইরানের শিক্ষা মন্ত্রণালয় ইংরেজি ভাষার একচেটিয়া আধিপত্য দূর করতে সারা দেশে স্কুলে পরীক্ষামূলকভাবে ফরাসি শেখানোর পরিকল্পনার ইঙ্গিত দিয়েছিল। সেপ্টেম্বরে সরকার ইরানি বা দ্বৈত-নাগরিকত্বের শিক্ষার্থীদের আন্তর্জাতিক স্কুলে ভর্তি হতে নিষেধ করে বলেছিল, ইরানি শিশুদের দেশের স্কুল পাঠ্যক্রম অনুসরণ করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।
 
এই সিদ্ধান্তের ফলে ফরাসি, জার্মান প্রতিষ্ঠানসহ তেহরানের কিছু আন্তর্জাতিক স্কুলে শিক্ষার্থীদের সংখ্যা হঠাৎ করে কমে যায়।