০৫ জুন ২০২৩, সোমবার, ০৮:৪৯:৪৪ অপরাহ্ন


খুলনায় স্ত্রীকে হত্যার তায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন
অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৫-০৭-২০২২
খুলনায় স্ত্রীকে হত্যার তায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন ফাইল ফটো


খুলনায় স্ত্রী রুবি আক্তারকে হত্যার দায়ে স্বামী মাসুদ রানাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। 

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) খুলনা মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মাহমুদা খাতুন এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি পলাতক রয়েছেন। রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওই আদালতের এপিপি অ্যাডভোকেট কামরুল হোসেন জোয়ার্দ্দার।

আদালতের সূত্র জানায়, হত্যাকাণ্ডের কয়েক মাস আগে মাসুদের সঙ্গে রুবি আক্তারের বিয়ে হয়। তারা নগরীর আড়ংঘাটা থানা এলাকার শলুয়া বাজার মসজিদপাড়া সংলগ্ন জনৈক খুকু মনির বাড়ির ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবার শুরু করে। মাসুদ ভ্যানে করে লেবুর শরবত বিক্রি করতেন। নিহত রুবী আক্তার বাড়িতে থেকেই দার্জির কাজ করতেন।

হত্যাকাণ্ডের কয়েকদিন আগে রুবী আক্তার জানতে পারেন তার স্বামী আরেকটি বিয়ে করেছেন। মাসুদ আয় যা করত তার সঠিক হিসেব দিতে পরত না। প্রায়ই এ বিষয়টি নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাকবিতণ্ডা হতো। ২০১৬ সালের ৩০ মে রাতে এ বিষয়টি নিয়ে তাদের মধ্যে আবারো ঝগড়া বাধে। পরে তাদের ঝগড়া মিটে যায়। পরে রাতের খাবার খেয়ে উভয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। পরেরদিন সকালে রুবি আক্তারের খোঁজ না পেয়ে প্রতিবেশীরা ঘরে খোঁজ নিতে গিয়ে দেখেন তিনি ঘুমিয়ে আছেন। সাড়াশব্দ না পেয়ে প্রতিবেশীদের খবরে পুলিশ এসে দরজা ভেঙ্গে তার লাশ উদ্ধার করে। কিন্তু ঘরের একপাশের বেড়া কাটা ছিল।

পুলিশ ঘটনাটি তদন্তে মাঠে নামে। ওই বাড়ির সকলকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে জানতে পারে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক কলহ লেগে থাকত। আর এটাকে কেন্দ্র করে মাসুদ তার স্ত্রী রুবী আক্তারকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এ ব্যাপারে নিহত রুবির পিতা জবেদ আলী বাদী হয়ে আড়ংঘাটা থানায় মামলা দায়ের করেন।

রাজশাহীর সময়/এম