০৩ Jul ২০২২, রবিবার, ১০:৪৫:০৯ পূর্বাহ্ন


উপাচার্যের রক্ষীর বিরুদ্ধে, বিশ্বভারতীর গবেষকের শ্লীলতাহানির অভিযোগ !
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
  • আপডেট করা হয়েছে : ২১-০৫-২০২২
উপাচার্যের রক্ষীর বিরুদ্ধে, বিশ্বভারতীর গবেষকের শ্লীলতাহানির অভিযোগ ! উপাচার্যের রক্ষীর বিরুদ্ধে, বিশ্বভারতীর গবেষকের শ্লীলতাহানির অভিযোগ !


ফের বিতর্কে বিশ্বভারতী । উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশে অশ্লীল মন্তব্য করার অভিযোগ উঠল। সেই সঙ্গে উপাচার্যের বাসভবন পূর্বিতার নিরাপত্তারক্ষীদের বিরুদ্ধে এক ছাত্রীর শ্লীলতাহানি করারও অভিযোগ উঠেছে। তৃণমূলের ছাত্র সংগঠন টিএমসিপির পক্ষ থেকে এই বিষয়ে শান্তিনিকেতন থানায় এফআইআর পর্যন্ত দায়ের করা হয়। উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী শুক্রবার সন্ধেয় অফিস থেকে বেরিয়ে বাসভবনে যাওয়ার সময় কয়েকজন ছাত্রছাত্রী তাঁর সঙ্গে কথা বলতে চান। সেই দলে ছিলেন এক মহিলা গবেষক। তাঁর অভিযোগ, উপাচার্য বলেন, “নোংরা ছেলে-মেয়েদের সঙ্গে আমি কথা বলব না”। এরপরই উপাচার্যের গাড়ি প্রবল গতিতে ওই ছাত্রছাত্রীদের গায়ের উপর দিয়ে চলে যাওয়ার চেষ্টা করে। কোনরকমে তাঁরা ছিটকে সরে গিয়ে প্রাণ বাঁচান বলে ওই গবেষকের দাবি।

অভিযোগ, এরপর উপাচার্যের বাসভবনের সামনে গেলে সেখানে নিরাপত্তারক্ষীরা ছাত্রদের মারধর করে। পাশাপাশি ওই মহিলা গবেষকের শ্লীলতাহানি করে বলেও অভিযোগ। এই বিষয়ে ওই রাতেই শান্তিনিকেতন থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয় তৃণমূল ছাত্র পরিষদের পক্ষ থেকে।

অভিযোগকারিনীর দাবি, উপাচার্যের বাসভবনের সামনের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ পরীক্ষা করলেই সব প্রমাণ পাওয়া যাবে। এদিকে শনিবার বিশ্বভারতীর জনসংযোগ দফতরের পক্ষ থেকে সোমনাথ সৌ নামে এক ছাত্র ও অভিযোগকারিনীর বিরুদ্ধে বিবৃতি জারি করা হয়। সেখানে ওই দুই ছাত্রছাত্রীর বিরুদ্ধে উপাচার্যকে হেনস্থার অভিযোগ আনা হয়েছে।