০৩ Jul ২০২২, রবিবার, ১২:৪২:০৪ অপরাহ্ন


পল্লবী বাড়ি না থাকলে প্রায়ই ফ্ল্যাটে আসত ঐন্দ্রিলা!
তামান্না হাবিব নিশু:
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৮-০৫-২০২২
পল্লবী বাড়ি না থাকলে প্রায়ই ফ্ল্যাটে আসত ঐন্দ্রিলা! পল্লবী বাড়ি না থাকলে প্রায়ই ফ্ল্যাটে আসত ঐন্দ্রিলা!


ফের সামনে এলো টেলি তারকা পল্লবীদে’র মৃত্যুর রহস্য। পল্লবীর বাবা নীলু দে অভিযোগ করেছিলেন যে, ঐন্দ্রিলার সঙ্গে সাগ্নিকের সম্পর্ক মেনে নিতে পারেনি তাঁর মেয়ে! যে অভিযোগ সামনে আসতেই চাঞ্চল্য পড়ে যায়। এবার সেই অভিযোগের সুর শোনা গেল পল্লবীর ফ্ল্যাটের পরিচারিকার গলায়। বললেন, “দিদি (পড়ুন পল্লবী দে) বাড়ি না থাকলে ফ্ল্যাটে আসত ঐন্দ্রিলা।” তিনি আরও জানিয়েছেন, সাগ্নিকের সঙ্গে ঐন্দ্রিলার ঘনিষ্ট সম্পর্ক খুব একটা ভাল লাগত না তাঁর। 

রবিবার গড়ফার  ফ্ল্যাট থেকে মেলে অভিনেত্রী পল্লবী দে’র ঝুলন্ত দেহ। সেই থেকে এই মৃত্যু ঘিরে তৈরি হয়েছে রহস্য। পল্লবীর পরিবার এই মৃত্যুর জন্য তাঁর লিভ ইন পার্টনার সাগ্নিকে কাঠগড়ায় তোলে। সাগ্নিকের নামে প্রতারণা, আর্থিক তছরুপ, শারীরিক নির্যাতন এবং খুনের অভিযোগ দায়ের করেন পল্লবীর বাবা। সেই অভিযোগ পেয়ে দফায় দফায় জেরার করার পর মঙ্গলবার বিকেলে সাগ্নিককে গ্রেফতার করে গড়ফা থানার পুলিশ।

তদন্তের স্বার্থে ডেকে পাঠানো হয় পল্লবীর ফ্ল্যাটের পরিচারিকাকে। বুধবার থানায় আসেন সেলিমা নামে ওই পরিচারিকা। সেলিমার কাছ থেকে পুলিশ প্রধানত পল্লবী ও সাগ্নিকের মধ্যে সম্পর্ক কেমন ছিল তা জানার জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করে। জানা গেছে সেই জিজ্ঞাসাবাদের সময়েই সেলিমা জানান, রবিবার পল্লবীর সঙ্গে তাঁর হাওড়ার বাড়ি যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু অসুস্থতার কারণে তিনি আসতে পারেননি। সে কথা ফোনে জানালে রাগ করেন পল্লবী। দুপুরবেলায় খবর পান পল্লবী মারা গেছেন।

তিনি আরও দাবি করেছেন, পল্লবী ফ্ল্যাটে না থাকলে বেশ কয়েকবার সেই ফ্ল্যাটে ঐন্দ্রিলাকে দেখেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, সাগ্নিকের সঙ্গে ঐন্দ্রিলার ঘনিষ্ঠতা না পছন্দ ছিল তাঁর। এমনকি গত শুক্র ও শনিবার রাতে বন্ধুদের পার্টিতেও উপস্থিত ছিলেন ঐন্দ্রিলা।

কেমন ছিল পল্লবী ও সাগ্নিকের সম্পর্ক? সেলিমা জানান, দুই জনের মধ্যে মাঝে মধ্যেই নানা বিষয় নিয়ে মন মালিন্য হত। মাঝে মাঝে ঝগড়া চরমে উঠত। তবে তাঁদের সম্পর্ক খুব একটা খারাপ ছিল না বলে জানিয়েছেন তিনি। তাঁর কথায়, মাঝে মধ্যে দুজনে বাইরে খেতে যেতেন, পার্টি করতেন, ঘুরতে যেতেন। যা দেখে মনে হয়নি ওদের মধ্যে সম্পর্ক খারাপ।

নতুন তথ্যের ওপর ভিত্তি করে পুলিশ তদন্ত চালাবে। পল্লবীর বাবা আগেই সাগ্নিকের সঙ্গে ঐন্দ্রিলার নামেও থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত ঐন্দ্রিলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেনি পুলিশ। এখন এটাই দেখার এবার তদন্তের গতিপ্রকৃতি কোনদিকে মোড় নেয়।