১৫ অগাস্ট ২০২২, সোমবার, ০৭:৫০:৪৫ পূর্বাহ্ন


জয়পুুরহাটে পুকুর খননের সময় বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার
নিরেন দাস(জয়পুরহাট)প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৬-০৪-২০২২
জয়পুুরহাটে পুকুর খননের সময় বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার জয়পুুরহাটে পুকুর খননের সময় বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার


জয়পুরগাটে ক্ষেতলাল উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের বানাইচ গ্রাম হতে সাড়ে ১৩ কেজি ওজনের একটি কালো পাথরের বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। উদ্ধারকৃত মূর্তিটি কোন সময়ের সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি৷ 

থানা সূত্রে জানা গেছে,মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯ টায় বানাইচ গ্রামের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল আলম তালুকদারের বাড়ি হতে ৩ খন্ডের ওই মূর্তিটি উদ্ধার করেন পুলিশ। 

আরও জানা গেছে, উপজেলার বানাইচ গ্রামের ওয়াকফ স্টেটের দামার পুকুরে ভেকু মেশিন দ্বারা পুকুর খননের সময় বুধবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় মূর্তিটি দেখতে পায় স্থানীয় দুইজন। পরে মূর্তিটি লুকানোর চেষ্টা করলে স্থানীয় গ্রামবাসী বিষয়টি মোবাইল ফোনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানা অফিসার ইনচার্জ কে জানালে। 

মূর্তিটি লুকানো বিষয়টি মুঠোফোনে জানতে পেরে ক্ষেতলাল উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানার অফিসার ইনচার্জ ওই রাতেই বানাইচ গ্রামে পৌঁছলে পুরো গ্রামবাসীর উপস্থিতিতে ওই গ্রামের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল আলম তালুকদারের বাড়ি হতে ২ খন্ডসহ ৩ খন্ডের সাড়ে ১৩ কেজি ওজনের কালো পাথরের একটি বিষ্ণুমূর্তিটি উদ্ধার করে প্রশাসন।

ক্ষেতলাল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) রওশন ইয়াজদানী জানান,তবে মূতির্টি কিসের এবং তার মূল্য সম্পর্কে কোন কিছুই জানা সম্ভব হয়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে এটি কালো পাথরের একটি বিষ্ণুমূর্তি বর্তমানে মূর্তিটি থানার মালখানায় জমা রাখা আছে। 

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইশতিয়াক আহমেদ জানান,মঙ্গলবার রাতে মূর্তিটি বানাইচ গ্রাম থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে মূর্তিটি কি ধরণের তা মূর্তি প্রত্নতত্ত্ব বিশেষজ্ঞ ছাড়া বলা সম্ভব নয়।

রাজশাহীর সময় / এম আর