০৭ ডিসেম্বর ২০২২, বুধবার, ১২:০১:৩৯ অপরাহ্ন


আরাফাত রহমান কোকোর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
  • আপডেট করা হয়েছে : ২৪-০১-২০২২
আরাফাত রহমান কোকোর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত আরাফাত রহমান কোকোর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত


সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তম ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কনিষ্ঠপুত্র বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক মরহুম আরাফাত রহমান কোকোর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি ২০২২) সন্ধ্যায় কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে এই আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি বশিরুল আলম চাঁদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় ভার্চুয়ালে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী। আরো বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক ও কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিন।

অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন, স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তমের জাতীয়তাবাদী রাজনীতির দর্শন ধ্বংস করার উদ্দেশ্যে জিয়াউর রহমানকে দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে হত্যা করা হয়। সেই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে তথাকথিত ওয়ান-ইলেভেনের মাধ্যমে জিয়া পরিবারকে বাংলাদেশের রাজনৈতি থেকে উচ্ছেদ করার উদ্দেশ্য নিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, দেশনায়ক জনাব তারেক রহমান ও জনাব আরাফাত রহমান কোকোর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে তাদের গ্রেফতার করে তাদের উপর যে অমানুষিক শারীরিক নির্যাতন করেছিল, তাঁর ফলে তাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছিল। তৎকালীন সরকার আন্দোলনের চাপে জনাব তারেক রহমান ও মরহুম আরাফাত রহমান কোকো কে বিদেশে চিকিৎসার জন্য পাঠাতে বাধ্য হয়েছিল। জনাব আরাফাত রহমান কোকো তাদের নির্যাতনের কারণে অকালে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সু-চিকিৎসার জন্য বিদেশ পাঠানোর জোর দাবি জানান। আলোচনা শেষে মরহুম আরাফাত রহমান কোকোর রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা বিএনপি'র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম রিন্টু, এ.কে বিশ্বাস বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. শামিম উল হাসান অপু, আব্দুল মুঈদ বাবুল, সদর থানা বিএনপির সদস্য সচিব জাহিদুল ইসলাম বিপ্লব, জেলা যুবদলের সভাপতি আল আমিন খান কানাই, সিনিয়র সহ-সভাপতি মেজবাউর রহমান পিন্টু, সাধারণ সম্পাদক কামাল উদ্দিন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ জাকারিয়া উৎপল, সদর থানা বিএনপি আহ্বায়ক কমিটির সদস্য প্রফেসর মহসিন আলী, আমিরুল ইসলাম আন্টু, সদর থানা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম-আহ্বায়ক আব্দুল আউয়াল বাদশা, সদস্য সচিব মনিরুল ইসলাম, সদর থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক সাইদুল ইসলাম টিপু, শহর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক আব্দুল রউফ রুবেল, শহর শ্রমীক দলের সাধারণ সম্পাদক সামসুল হক, শহর মৎস্যজীবী দলের সভাপতি রবিউল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান সহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রাজশাহীর সময় /এএইচ