২৯ জানুয়ারী ২০২৩, রবিবার, ০৯:৪৭:৪৬ অপরাহ্ন


আজ নবাবগঞ্জ পাক হানাদার মুক্ত দিবস
আতিকুল ইসলাম চৌধুরী, নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৬-১২-২০২২
আজ নবাবগঞ্জ পাক হানাদার মুক্ত দিবস আজ নবাবগঞ্জ পাক হানাদার মুক্ত দিবস


আজ নবাবগঞ্জ উপজেলা পাকিস্তান হানাদার মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের (৬ ডিসেম্বর) মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে পাক হানাদার বাহিনীর দখল থেকে আজকের দিনে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্র বাহিনী নবাবগঞ্জ উপজেলাকে পাক হানাদার মুক্ত করেন।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধার সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা দবিরুল ইসলাম জানান, ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধ চলাকালে ৬ ডিসেম্বর উপজেলার ভাদুরিয়া নামকস্থানে পাক হানাদারদের সাথে মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্র বাহিনীর তুমুল লড়াই হয়। তখনকার দায়িত্বপ্রাপ্ত ৭নং সেক্টরের অধীনে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা শাহ মাহফুজার রহমান, শামসুল আরেফিন, নুরুল ইসলাম, মকবুল হোসেনসহ অন্যান্য মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্র বাহিনী এ যুদ্ধে অংশ নেন। 

মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্র বাহিনীর তীব্র আক্রমণে পাক হানাদাররা বাধ্য হয়ে পিছু হটতে হটতে ঘোড়াঘাট এলাকায় পালিয়ে যায় এবং নবাবগঞ্জ উপজেলা হানাদার মুক্ত হয়।

দিবস উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টায় উপজেলা চত্বর ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে উপজেলা প্রশাসন ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ । 

এসময় এক বর্ণাঢ্য মুক্তি শোভাযাত্রা বের করা হয় ।শোভাযাত্রাটি উপজেলা প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এসে শেষ হয়। পরে পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) এম এম আশিক রেজার সভপতিত্বে দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ দবিরুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ পারুল বেগম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভৃমি) মোঃ কামরুজ্জামান সরকার,থানা ভারপ্রাপ্ত তদন্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মমিনুজ্জামান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা প্রসেনজিৎ তালুকদার ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ এখলাছুর রহমান, যুদ্ধ কালীন গ্রুপ কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুর রৌফ চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের আহ্বায়ক মোঃ উজ্জ্বল আলী সরকার প্রমূখ।

এ সময় উপজেলার সকল মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধা পরিবার, সাংবাদিক ও সুধী জন উপস্থিত ছিলেন।