ঢাকা বুধবার, জুন ৩, ২০২০
ঈদের আগে বা পরপরই এসএসসির ফল প্রকাশের চেষ্টা
  • Rajshahir Somoy Desk
  • ২০২০-০৫-০৪ ১৭:২৭:৪৬
ঈদের আগে বা পরপরই এসএসসির ফল প্রকাশের চেষ্টা

রাজশাহীর সময় ডেস্ক : ঈদের আগে বা পরপরই এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশের চেষ্টা করছেন আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটি। এ লক্ষ্যে জোরেশোরে কাজ শুরু করেছে শিক্ষা বোর্ডগুলো। ডাকযোগে ওএমআর শিট পাঠাতে ইতিমধ্যেই নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। করোনার প্রার্দুভাবের মধ্যেও ভিন্ন উপায়ে ফল প্রকাশের কাজ শুরু করা হয়েছে।  

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক কালের কণ্ঠকে বলেন, ঢাকা মহানগরের যেসব ওএমআর শিট ছিল সেগুলো আমাদের হাতে চলে এসেছে। আমরা স্ক্যানিংয়ের কাজ শুরুও করেছি। অনেক উপজেলা থেকে প্রধান পরীক্ষকরা ডাকযোগে ওএমআর শিট পাঠাতে পারছেন না। আমরা তাদের বলেছি, যেভাবেই হোক জেলা সদরে এসে ডাকযোগে শিট পাঠাতে। আর কয়েকদিন পরে বলা যাবে, আমরা কবে এসএসসির ফল প্রকাশ করতে পারবো।’

আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের এই সভাপতি বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি, ঈদের আগেই এসএসসি ও সমমমানের ফল প্রকাশ করতে। সেটা না পারলে ঈদের পরপরই ফল প্রকাশের চেষ্টা থাকবে। আর ফলাফল কোনো শিক্ষার্থীকে স্কুলে গিয়ে নিতে হবে না। শিক্ষার্থীরা এসএমএস বা ওয়েবসাইটের মাধ্যমেই ফল জানতে পারবে। একাদশ শ্রেণির ভর্তির পুরো কার্যক্রম চলে অনলাইনে। কিন্তু এসএসসির ফল প্রকাশ করতে না পারায় একাদশের ভর্তি কার্যক্রম শুরু করা যাচ্ছে না। তাই আমরা এই সাধারণ ছুটির মধ্যেও ভিন্ন উপায়ে কাজ শেষ করে এসএসসির ফল প্রকাশের চেষ্টা করছি।’

গত রবিবার এসএসসির খাতার ওএমআর শিট ডাকযোগে পাঠাতে ঢাকা মহানগর ছাড়া অন্যান্য এলাকার প্রধান পরীক্ষকদের নির্দেশ দিয়েছে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড। আগামী ১০ মের মধ্যে পোস্ট অফিসের মাধ্যমে বোর্ডে ওএমআর শিট পাঠাতে হবে।

নির্দেশনায় বলা হয়, কমলা রঙের প্যাকেটে জরুরি উলে­খ করে সিলমোহরকৃত অবস্থায় পোস্ট অফিসের মাধ্যমে এসএসসির খাতার ওএমআর শীট পাঠাতে হবে প্রধান পরীক্ষকদের। আর ওএমআর পাঠানোর ঠিকানা হিসেবে উলে­খ করা হয়েছে, সিনিয়র সিস্টেম এনালিস্ট, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বোর্ড ঢাকা, ১৩-১৪ জয়নাগ রোড বকশিবাজার ঢাকা।

জানা যায়, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে গত ১৭ মার্চ সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর এসএসসি পরীক্ষার খাতার  ওএমআর শিট স্ক্যানিং স্থগিত করেছে ঢাকা বোর্ড। করোনার মধ্যেই ফের ওএমআর স্ক্যানিংয়ের কাজ শুরু করা হয়েছে।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি এসএসসির তত্ত্বীয় এবং ৫ মার্চ ব্যবহারিক পরীক্ষা শেষ হয়। শিক্ষাপঞ্জি অনুসারে, গত একযুগ ধরেই পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যেই ফলাফল প্রকাশ করা হয়। সেই হিসেবে চলতি সপ্তাহেই এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশের কথা। কিন্তু এবার করোনা ভাইরাসের কারনে সবকিছু বন্ধ থাকায় যথাসময়ে প্রকাশ করা সম্ভব হচ্ছে না এসএসসির ফল। আর এসএসসির ফল প্রকাশ না করতে পারায় অনলাইনে একাদশ শ্রেনীর ভর্তি কার্যক্রমও শুরু করা যাচ্ছে না।

রাজশাহীর সময় ডট কম মে ২০২০

মাধ্যমিকে ১০৪ প্রতিষ্ঠানের কেউ পাস করেনি
এসএসসিতে পাশের হার ৮০ শতাংশেরও বেশি, এগিয়ে রাজশাহী
পাসের হার ও সংখ্যায় মেয়েরা এগিয়ে