ঢাকা রবিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২১
৫ খাবারেই আয়ু বাড়বে ১০০ বছর!
  • Rajshahir Somoy Desk
  • ২০২১-১১-২৫ ১২:০৭:৩১
ফাইল ফটো

ফারহানা জেরিন এলমা: বেশি দিন বাঁচতে কে না চান! তবে সবাই তো আর দীর্ঘায়ু লাভ করতে পারেন না। এজন্য প্রয়োজন স্বাস্থ্যকর উপায়ে ও সুস্থভাবে জীবনধারণ করা। সুস্থভাবে বাঁচতে প্রথমেই বাদ দিতে হবে ধূমপান ও মদ্যপানের অভ্যাস। আর ভালো রাখতে হবে মন। মনে রাখবেন, মানসিক চাপও কমিয়ে দেয় আয়ু।

দীর্ঘায়ু পেতে এসবের পাশাপাশি খাদ্যাভ্যাসেও আনতে হবে বদল। অতিরিক্ত ভাজাপোড়া, মিষ্টি ও নোনতা খাবারও পাতে রাখা যাবে না। নিয়ম করে পাতে রাখতে হবে ৪টি খাবার। নিয়মিত এই ৫ খাবার খেলে ১০০ বছর পর্যন্ত সুস্থভাবে বেঁচে থাকা সম্ভব বলে মনে করে পুষ্টিবিদরা।

আন্তর্জাতিকভাবে স্বনামধন্য বিজ্ঞানী ও পুষ্টির বিশেষজ্ঞ ডা. জেমস ডি নিকোলান্টোনি সম্প্রতি ১০০ বছরের বেশি জীবনযাপনের জন্য যে খাবারগুলো কার্যকরী, সে সম্পর্কে একটি তালিকা দিয়েছেন। ডা. জেমস ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন তালিকাটি। খাবারগুলো হলো-

>> হৃদ্রোগ ও ক্যানসারের আশঙ্কা কমিয়ে দিতে পারে মধু। নিয়মিত এক চামচ খাঁটি মধু খেলে এ অসুখের ঝুঁকি কমে যায়। ন্যাশনাল লাইব্রেরি অব হেলথে প্রকাশিত এক সমীক্ষায় বলা হয়, স্তন, যকৃত ও অন্ত্রের ক্যানসারের ঝুঁকি কমে যায় মধু খেলে। ফলে আয়ু হয় দীর্ঘ।

>> ছাগলের দুধেও এমন কিছু উপাদান আছে, যেগুলো ক্যানসার প্রতিহত করতে সাহায্য করে। একাধিক টেস্ট টিউব গবেষণায় এটি প্রমাণিত হয়েছে। জার্নাল অব মেডিসিনাল ফুডে প্রকাশিত এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, যে নারীরা নিয়মিত ছাগলের দুধ খান, তাদের স্তনের ক্যানসারের ঝুঁকি অনেক কমে যায়। তবে কতটুকু খাবেন তা চিকিৎসকের কাছ থেকে জেনে নিন।

>> দীর্ঘায়ু পেতে সাহায্য করে বেদানা। এর নানা ভিটামিন রোগ প্রতিরোধ শক্তি বাড়িয়ে দেয়। বেদানা রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বাড়ায়। বেদানার কয়েকটি উপাদান পেশির ক্ষয়ের পরিমাণ অনেক কমিয়ে দিতে পারে।

'নেচার মেডিসিন' জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণায় জানা গেছে, বেদানায় থাকা মাইটোকন্ড্রিয়া নামক অণু পেশীর স্বাস্থ্য উন্নত রাখে। এ ছাড়াও বার্ধক্যজনিত নানা অসুখসহ স্নায়ুর নানা সমস্যাও কমিয়ে দিতে পারে এই ফল।

>> দীর্ঘায়ু পেতে কাঁচকলা খেতে পারেন। কাঁচকলার নানা উপাদান রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে। সবুজ কলায় এক ধরণের প্রিবায়োটিক উপস্থিত আছে, যা অন্ত্রে স্বাস্থ্যকর ব্যাকটেরিয়া বাড়ায়। বিভিন্ন গবেষণা অনুসারে, একটি সবুজ কলা খেলে কিডনির ক্যানসারের ঝুঁকি প্রায় ৫০ শতাংশ কমে যায়।

>> গাঁজন দেওয়া খাবার বিপাকীয় হার পরিবর্তন করে। ফলে পাকস্থলী সহজেই খাবার হজম করতে পারে। গাঁজনযুক্ত খাবারে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্যর সঙ্গে থাকে প্রোবায়োটিক। যা বার্ধক্য দূর করে ও দীর্ঘায়ু করে। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

রাজশাহীর সময় / এফ কে

চেষ্টা করেও মা হতে পারছেন না? অজান্তেই কিছু ভুল করছেন না তো
শীতকালে বিশেষ ধরনের স্যুপ খেলে শরীর সুস্থ ও মানসিকভাবে চনমনে থাকে
শীতে বেড়াতে গেলে সঙ্গে যা রাখবেন