ঢাকা রবিবার, জুন ২০, ২০২১
৫০০ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে নিশ্চিন্তে ঘুম
  • Rajshahir Somoy Desk
  • ২০২১-০৬-১০ ১১:৩৭:০৫
ফাইল ফটো

রিয়াজ উদ্দীন: কখনও তীব্র গরম আবার কখনও বৃষ্টি। এসব সয়ে গেছে বনের পশু-পাখিদের। সে কারণেই হয়তো তাদের জীবন-যাপন মানুষের মতো জটিল নয়। সারাদিন ঘুরে ফিরে ক্লান্তিতে দু'চোখ জুড়ে ঘুম নেমে এলে স্থান, কাল ভুলে যেখানে সেখানেই ঘুমিয়ে পড়ে তারা। ভালো বিছানার খোঁজে সময় নষ্ট করতে হয় না তাদের। মা-বাবারা ছানা পোনাদের নিয়ে লেপ্টে থাকে ঘুমে। আর ঘুমিয়ে থাকা হাতির দলের এমনই এক অদ্ভূত সুন্দর ছবি এখন ভেসে বেড়াচ্ছে সামাজিক মাধ্যমে।

শিনহুয়াসহ চীনের প্রায় সব গণমাধ্যমেই হাতির দলের ঘুমের ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। ইউনান প্রদেশ থেকে তোলা হয়েছে এই ছবি। ওই প্রদেশের সঙ্গেই মিয়ানমারের কাচিন ও সান প্রদেশ। দুই দেশের সীমান্ত এলাকার জঙ্গলে ১৫টি এশিয়ান হাতি দিনের পর দিন পাড়ি দিচ্ছে নিজেদের খেয়াল খুশি মতো। নির্দিষ্ট কোনও গন্তব্য নেই তাদের। এই হাতিদের উপর নজর রাখছেন চীনা বিশেষজ্ঞরা।

আনুমানিক গত ১৫ মাস ধরে হেঁটে চলেছে হাতির এই দলটি। নিজেদের আস্তানা থেকে এভাবে তারা চলে এসেছে ৫শ কিলোমিটার দূরে। হাতির পালের এই যাত্রায় চোখ রাখছেন বিশেষজ্ঞরা। ১৪ টি ড্রোন এবং ৫শ জনকে নিয়োগ করা হয়েছে হাতিগুলোকে নিরাপদ রাখতে। এরাই প্রতিদিন হাতিদের গতিবিধি জানাচ্ছেন।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মাধ্যম বলছে, ইউনান প্রদেশের রাজধানী কুনমিংয়ের জিননিং জেলার কাছে ক্যামেরাবন্দি হয়েছে হাতির পালের ঘুমের ছবি। সেই ছবিই এখন বিশ্বজুড়ে আলোড়ন ফেলেছে।

১৫টি হাতির মধ্যে বাচ্চা হাতি তিনটি। এদের দুজন আবার দলছুট হয়ে গেছে। হাতির পালের হামলায় কয়েকটি গ্রামের ফসল নষ্ট হয়েছে বলেও খবর পাওয়া গেছে।

কুনমিং শহরের উপরেও এরা হেঁটে তাক লাগিয়েছে। বিজ্ঞানীদের ধারণা, নিজেদের আস্তানা থেকে কোনো হাতির পালের এমন দীর্ঘ পথ পাড়ি দেওয়া খুবই বিরল ঘটনা। তাদের প্রতি মুহূর্তের গতিবিধি এখন গবেষণার বিষয়।

চীনা সরকারের পক্ষ থেকে হাতিগুলোকে ইউনান প্রদেশের ম্যানগিয়াংজি ন্যাচারাল রিজার্ভে ফেরানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে এরা চলছে খেয়াল খুশি মতো। এই হাতির দলের বেশ কিছু বিরল ছবি ধারণ করা হয়েছে। তার মধ্যে বাচ্চা হাতি নিয়ে মা এবং অন্যদের ঘুমিয়ে থাকার ছবিটিই সবার নজর কেড়েছে।

রাজশাহীর সময় / এফ কে

ভারতে শনাক্ত কমলেও বেড়েছে মৃত্যু
নাইজেরিয়ায় পুলিশকে হত্যা করে ৮০ শিক্ষার্থী অপহরণ
আল-আকসায় আবারও হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি পুলিশ