ঢাকা মঙ্গলবার, মে ১৮, ২০২১
রাজশাহীতে বিএমডিএ প্রকল্পের কাজে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ
  • Rajshahir Somoy Desk
  • ২০২১-০৪-১৮ ১৬:৪২:১১
রাজশাহীতে বিএমডিএ প্রকল্পের কাজে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী নগরীর কাটাখালি থানা এলাকায় বরেন্দ্র বহুমুখি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) একটি প্রকল্পের ড্রেন ও প্রটেকশন ওয়াল নির্মাণ কাজে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। প্রকল্পের আওতায় কাটাখালি বাজার থেকে বাখরাবাজ মোল্লাপাড়া হয়ে শ্যামপুর নগরপাড়া পর্যন্ত ৪০০ মিটার ড্রেন ও প্রটেকশন ওয়াল এবং কাটাখালি থেকে বেলঘরিয়া পর্যন্ত ২০০ মিটার ড্রেন ও প্রটেকশন ওয়াল নির্মাণ করা হচ্ছে। দরপত্র কার্যাদেশ অনুযায়ী কাজ না করে নিজের ইচ্ছেমত কাজ  করছে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। অনিয়মের বিষয়টি স্থানীয়দের পক্ষ থেকে প্রকল্প পরিচালককে মৌখিকভাবে অবহিত করা হলেও রহস্যজনক কারণে তিনিও কোনো পদক্ষেপ নেননি। 

স্থানীয়দের অভিযোগ, এই ড্রেনের কাছে প্রটেকশন ওয়ালের ঢালাই ১২ ইঞ্চি ও ছলিং ১০ ইঞ্চি হওয়ার কথা থাকলেও বাস্তবে তা হচ্ছে না। একেবারেই নিম্নমানের ইট, খোয়া ও বালি ব্যবহার করে চলছে ঢালাইয়ের কাজ। 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি জানান, এই ড্রেন ও ওয়াল নির্মাণে সিমেন্টের পরিমাণ কম ও বালি দেয়া হচ্ছে বেশি। এছাড়া খুবই নিম্নমানের ইটের খোয়া ব্যবহার করা হচ্ছে। ফলে ড্রেন ও ওয়াল অল্প সময়ের ব্যবধানে ভেঙ্গে পড়ার আশংকা রয়েছে। অনেকটা দায়সারাভাবে কাজ করা হচ্ছে। 

তারা আরও বলেন, প্রকল্পের পরিচালক বিএমডিএর নির্বাহী প্রকৌশলী নাজিরুল ইসলাম গত বৃহস্পতিবার সরেজমিনে প্রকল্পের কাজ পরিদর্শন করতে এসেছিলেন। আমরা তাকে কাজে অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়টি সুনির্দিষ্টভাবে জানিয়েছি। কিন্তু তিনি ঠিকাদারকে ভালোভাবে কাজ করার কথা বলে চলে যান। কিন্তু ঠিকাদার নিজের ইচ্ছেমত দায়সারাভাবে কাজ করছেন। তারা বলেন, এ ব্যাপারে প্রকল্প পরিচালকের ভূমিকা সন্তোষজনক মনে হয়নি। 

প্রকল্পের কাজের অনিয়মের বিষয়ে জানতে গত কয়েকদিন ধরে প্রকল্পচালকের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। বিভিন্ন সময়ে তাকে কল করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি। ফলে এ ব্যাপারে তার বক্তব্য জানা যায়নি।

সূত্র বলছে, চলমান লকডাউনে সরকারি অফিস বন্ধ রয়েছে। এই সুযোগে প্রকল্প পরিচালকের অবহেলা ও গাফেলতির কারণে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দায়সারাভাবে কাজ করছেন।

এ ব্যাপারে কাটাখালি পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী জানান, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজে ফাঁকি দিচ্ছে। খুবই নি¤œমানের কাজ হচ্ছে। প্রকল্প পরিচালকও এ ব্যাপারে নিরব ভূমিকা পালন করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঠিকাদার মিলন জানান, আমরা সিডিউল অনুযায়ী কাজ করছি। এই কাজে কোনো অনিয়ম ও দুর্নীতি হচ্ছে না বলে দাবি করেন তিনি। এক প্রশ্নের জবাবে মিলন জানান, কাটাখালি থেকে বেলঘরিয়া পর্যন্ত ২০০ মিটার ড্রেন ও প্রটেকশন ওয়াল নির্মাণ কাজটি ৪৫ লাখ টাকা ব্যয়সাপেক্ষ। 

রাজশাহীর সময় / এফ কে

রাজশাহীতে অটোরিকশার ধাক্কায় পথচারী নিহত
নিসচা, রাজশাহী জেলা শাখার শোক বিবৃতি
রাজশাহী নগরীতে হঠাৎ স্বস্তির বৃষ্টি