ঢাকা বুধবার, এপ্রিল ১৪, ২০২১
আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পুলিশ উপ-পরিদর্শকের উপস্থিতিতে জোরপূর্বক বিরোধীয় সম্পত্তি দখল
  • Rajshahir Somoy Desk
  • ২০২১-০৪-০৫ ২০:২৪:৪৫
আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পুলিশ উপ-পরিদর্শকের উপস্থিতিতে জোরপূর্বক বিরোধীয় সম্পত্তি দখল

পাবনা প্রতিনিধি: আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পাবনার সদর উপজেলার দোগাছি ইউনিয়নের মহুরি গ্রামের বিবদমান চাষকৃত ফসলি জমিতে ধানের চারা নষ্ট করে পরিকল্পিতভাবে সিমেন্টের খুঁটি ও বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে জোরপূর্বক দখল করে নেয়া হয়েছে।

গতকাল রবিবার বেলা সাড়ে ১১টায় উক্ত বিরোধীয় চাষকৃত ফসলি জমি দখলে নেয়া হয়। এ সময় উপস্থিত থেকে পাবনার সদর থানার উপ-পরিদর্শক শহীদুলের বিরুদ্ধে দখলকারীদের পক্ষে সহযোগীতা ও পক্ষপাতিত্বের গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল রবিবার বেলা ১১টায় মো. জবাহার প্রাং একদল সন্ত্রাসী ভাড়া করে ও পাবনার সদর থানার উপ-পরিদর্শক শহীদুলকে ম্যানেজ করে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নালিশী সম্পত্তিতে সিমেন্টের খুঁটি গেড়ে ও বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে দখলে নিয়েছেন। 
জমির প্রকৃত মালিক মো. আব্দুল আজিজ জানান, আমি আমার ফুফু সোহাগী নেছার কাছ থেকে চর-কোশাখালী মৌজার ৪৪৮, ৪৫৯ আরএস, দাগের .৯৮৫৩ একর জমি ক্রয় করে ভোগ দখল করে আসছি। কিন্তু মৃত এলাহী প্রাং এর ছোট ছেলে মো. জবাহার প্রাং হঠাৎ করে আমার ক্রয়কৃত সম্পত্তি নিজের বলে দাবি করে এবং বিভিন্ন ভাবে সন্ত্রাসী কার্যালপের মাধ্যমে জোরপূর্বক দখলের অপচেষ্টা চালায়। এর পূর্বে তারা আমার ও পরিবারের সদস্যদের হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। এ অবস্থায় আমি আইনের আশ্রয় নিয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা করি।

এসময় বিজ্ঞ আদালত গত ২১ সালের ১ মার্চ আদালত ওই সম্পত্তিতে কোনো প্রকার স্থাপনা নির্মাণ, আকার আকৃতি পরিবর্তন না করা ও মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত উভয় পক্ষের মধ্যে স্থিতাবস্থা বজায় রাখার জন্য পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে আদেশ দেন।
এমন অবস্থায় গত রবিবার বেলা সাড়ে ১১টায় মো. জবাহার প্রাং একদল সন্ত্রাসী ভাড়া করে ও পাবনার সদর থানার এসআই শহীদুলকে ম্যানেজ করে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নালিশী সম্পত্তিতে জোরপূর্বক সিমেন্টের খুঁটি গেড়ে ও বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে দখলে নেয়।

এসময় ধান চাষকৃত ফসলি জমি দখলের প্রতিবাদ করতে গেলে এসআই শহীদুলের সামনে মো. জবাহার প্রাং এর ভাড়া করা সন্ত্রাসীরা আমিসহ আমার পরিবারের সদস্যেদের ওপর হামলার চেস্টা চালালে ৯৯৯ ফোন দিই। ৯৯৯ ফোন দেয়ার প্রায় দেড় ঘন্টা পরে ঘটনাস্থলে পাবনার সদর থানার উপ-পরিদর্শক নূর আলম উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন।

এবিষয়ে পাবনার সদর থানার উপ-পরিদর্শক শহীদুল মুঠোফোনে এই প্রতিবেদককে জানান, ৯৯৯ ফোন পেয়ে আমি সেখানে উপস্থিত হয়েছিলাম। বিষয়টি নিয়ে এসপি স্যার অবগত আছেন।

এ বিষয়ে উপস্থিত এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী পরিবার জানান, ৯৯৯ ফোন করার অনেক পূর্বেই বিশেষ সুবিধা নিয়ে উপ-পরিদর্শক শহীদুল ও মো. জবাহার প্রাং এর ভাড়া করা একদল সন্ত্রাসী বাহিনী পূর্ব পরিকল্পিতভাবে উপস্থিত ছিলেন। ঘটনার প্রতিবাদ করলে উপ-পরিদর্শক শহীদুলের সামনেই মো. জবাহার প্রাং ও তার ভাড়া করা সন্ত্রাসী বাহিনী জমির প্রকৃত মালিক মো. আব্দুল আজিজের পরিবারের সদস্যদের ধাওয়া করে। 

রাজশাহীর সময় / এফ কে

ঈশ্বরদীতে সড়ক দুর্ঘটনায় ভ্যান চালকের মৃত্যু
ঈশ্বরদীতে নদীতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
পাবনায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বিরোধীয় সম্পত্তি দখল