মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:৫৮ অপরাহ্ন

আজ শনিবার কলাপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

আজ শনিবার কলাপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

রাজশাহীর সময় ডেস্ক : আজ শনিবার পটুয়াখালীর কলাপাড়ার নিশানবাড়িয়ায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী পায়রা তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের উন্নয়ন কর্মসূচি পরিদর্শনসহ ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য নির্মিত ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ আবাসনের উদ্বোধন করবেন। এ ছাড়াও ৫টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর ও ১৬টি উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ফলক উন্মোচন করবেন তিনি।

পরে সেখানে আয়োজিত সুধী সমাবেশে যোগদান করবেন প্রধানমন্ত্রী। পরে বিকালে বরগুনার তালতলী উপজেলায় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় যোগ দেবেন সরকারপ্রধান।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর এ আগমন উপলক্ষে চূড়ান্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসন। রয়েছে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে কয়েক দিন ধরেই দলীয় নেতাকর্মীরা সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে লিফলেট বিতরণ করছেন।

এ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর আগমনে তাকে স্বাগত জানিয়ে চলছে মিছিল মিটিং। বলতে গেলে জেলা-উপজেলা এবং তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রে চলছে উৎসবমুখর পরিবেশ। অপেক্ষার প্রহর গুনছে ১৩০টি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার। যাদের হাতে ‘স্বপ্নে ঠিকানা’র চাবি তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী নিজেই।

এ ছাড়াও বরগুনার তালতলীর জনসভা সফল করতে এবং স্থানীয় নেতাকর্মীদের যোগদানের জন্য নেয়া হয়েছে নানা প্রস্তুতি। মহাসড়ক থেকে গ্রামীণ জনপদের সর্বত্র শোভা পাচ্ছে রং বেরঙের পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন। এতে তুলে ধরা হয়েছে সরকারের উন্নয়ন চিত্র। বিভিন্ন সড়কে নির্মিত হয়েছে সুদৃশ্য অনেক তোরণ।

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব-১ কাজী নিশাত রসুল স্বাক্ষরিত একটি পত্রে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলায় কৃষক প্রশিক্ষণকেন্দ্র, পায়রা সমুদ্রবন্দরের ভূমি অধিগ্রহণের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পুনর্বাসন প্রকল্প, কুয়াকাটা খানাবাদ কলেজে ৪ তলাবিশিষ্ট নবনির্মিত একাডেমিক ভবন নির্মাণ, মুক্তিযোদ্ধা মেমোরিয়াল কলেজে ৪ তলাবিশিষ্ট নবনির্মিত একাডেমিক ভবন নির্মাণ, আলহাজ জালাল উদ্দিন কলেজে ৪ তলাবিশিষ্ট নবনির্মিত একাডেমিক ভবন নির্মাণ, পায়রা সমুদ্রবন্দরের ফোরলেন শেখ হাসিনা সড়ক, পায়রা সমুদ্রবন্দরের সার্ভিস জেটি, পায়রা সমুদ্রবন্দরের মসজিদ, পায়রা সমুদ্রবন্দরের অফিসার্স গেস্ট হাউস এবং পায়রা সমুদ্রবন্দরের স্টাফ ডরমিটরি উদ্বোৃধন করবেন।

পটুয়াখালী পুলিশ সুপার মাইনুল হাসান জানান, প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে কেন্দ্র করে সব নিরাপত্তা প্রস্তুতি সম্পন্ন। নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট এলাকা।

পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মতিউল ইসলাম চৌধুরী জানান, প্রধানমন্ত্রী পটুয়াখালীর ১৬টি উন্নয়ন প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন ছাড়াও ৫টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন। এছাড়া পায়রা ১৩২০ মেগাওয়াট তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র এলাকায় ‘স্বপ্নের ঠিকানা’য় একটি সুধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।সূত্র:যুগান্তর।

রাজশাহীর সময় ডট কম২৭ অক্টোবর  ২০১৮ 





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com