সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৩:২১ অপরাহ্ন

মনোনয়ন চুড়ান্ত হওয়ার আগেই নগরী জুড়ে এমপি বাদশার ফেস্টুন ও পোস্টার : নগর আ’লীগের ক্ষোভ

মনোনয়ন চুড়ান্ত হওয়ার আগেই নগরী জুড়ে এমপি বাদশার ফেস্টুন ও পোস্টার : নগর আ’লীগের ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক: মনোনয়ন চুড়ান্ত হওয়ার আগেই আবারো নির্বাচিত করার আহ্বান জানিয়ে রাজশাহী নগরজুড়ে পোস্টার আর ফেস্টুনে সাটিয়েছেন সদর আসনের সংসদ সদস্য ও ওয়াকার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা। গত প্রায় ১সপ্তাহ্ ধরে তার রঙ্গিন

এসব পোস্টার ও ফেস্টুন নগরীর সৌন্দর্য বর্ধনের গ্রিল, বিদ্যুৎ পোল, শহর রক্ষা বাঁধের কোলে চোখে পড়ছে। তার এ প্রচারণা সামগ্রি নিয়ে নগর আওয়ামী লীগের অধিকাংশ নেতাকর্মীদের মধ্যে এক ধরনের ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। এবার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা চাইছিলেন তাদের দলের কাউকে মনোনয়ন দেয়া হোক।

সেই দাবিতে কোনো কোনো নেতাকর্মী সোচ্চারো ছিলেন। কিন্তুএবারো আওয়ামী লীগ জোটবদ্ধভাবে নির্বাচনে অংশ নিতে যাওয়ায় সেই দাবি ক্রমেই ফিকে হয়ে যাচ্ছে। আর এটি হলে এবারো জোটের শরিক দল হিসেবে ওয়াকার্স পার্টির প্রভাবশালী নেতা হিসেবে ফজলে হোসেন বাদশাকেই মহাজোট থেকে মনোনয়ন দেয়া হবে-এটা প্রায় নিশ্চিত।

এ কারণেই নগরজুড়ে আগাম পোস্টার-ফেস্টুন সাটিয়েছেন বর্তমান এমপি ফজলে হোসেন বাদশা। এমপি ফজলে বাদশাও সেই দাবিই করেছেন।

তিনি বলেন, রাজশাহীর উন্নয়নের জন্য তিনি কাজ করেছেন। জোটের শরিক দল হিসেবে আওয়ামী লীগের সঙ্গেও ওয়াকার্স পার্টির ভালো সম্পর্ক। কাজেই এবারো আমি মনোনয়ন পাবো, সেটা প্রায় নিশ্চিত। যার কারণেই নগরজুড়ে আগাম নির্বাচনী পোস্টার ও ফেস্টুন সাটানো হয়েছে।

সরেজমিন নগরীর বিনোদপুর বাজার, কাজলা মোড়, অকট্রয় মোড়, তালাইমারী, পুরো শহরক্ষা বাঁধের কোলে, রেলগেট, দরিখরবোনা, বর্ণালী, বন্ধগেট, লক্ষীপুর, সাবে বাজার, আলুপট্টি, মোড় ঘুরে দেখা গেছে, এসব মোড়ের বিভিন্ন স্থানে টাঙ্গানো রয়েছে এমপি বাদশার রঙ্গীন ছবি সংবলিত ফেস্টুন।

তাতে লিখা আছে, উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আবারো এমপি নির্বাচিত করি ফজলে হোসেন বাদশাকে। এর বাইরে নগরজুড়ে বিভিন্ন স্থানে সাটানো হয়েছে একই ধরনের পোস্টার।

নগরীর প্রবেশদ্বার নওদাপাড়া বাজারে বিশালাকার একটি ফেস্টুন টাঙ্গানো হয়েছে একই শ্লোগান সংবলিত। এদিকে মনোনয়ন চ’ড়ান্ত হওয়ার আগেই এমপি বাদশার এই ধরনের ফেস্টুন ও পোস্টার নিয়ে নগর আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মীদের মাঝেই এ নিয়ে চরম ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। তাঁদের দাবি, জোটগতভাবে নির্বাচনে গেলেই ওয়াকার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা মনোনয়ন পেতে পারেন সেটি সঠিক নাও হতে পারে।

কারণ এবার আওয়ামী লীগেরো বেশ কয়েকজন প্রার্থী চাইছেন তাদেরই কাউকে মনোনয়ন দেয়া হোক। দীর্ঘদিন ধরে রাজশাহী সদর আসনটি হাতছাড়া আওয়ামী লীগের। সেই জায়গা থেকে এবার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা চাইছেন তাঁদের কাউকে মনোনয়ন দেয়া হোক। এই দাবিতে এখনো মাঠে রয়েছেন বেশ কয়েকজন নেতা।

তাঁদের মধ্যে রয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সদস্য আহসানুল হক পিন্টু, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা হাবিবুর রহমান বাবু ও মহানগর যুবলীগের সভাপতি রমজান আলী। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মহানগর আওয়ামী লীগের একাধিক নেতাকর্মী বলেন, আওয়ামী লীগ রাজশাহী সদরে আসনে দীর্ঘদিন ধরে এমপি হারিয়েছে।

নির্বাচনে এবার দলীয় কাউকেই মনোনয়ন দেয়া হোক। কিন্তু মনোনয়ন চূড়ান্ত না হতেই নগরজুড়ে বর্তমান এমপি ফজলে হোসেন বাদশার পোস্টার নিয়ে নেতাকর্মীদের মাঝে কিছুটা ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। জানতে চাইলে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার বলেন, আমরা চাই আওয়ামী লীগের কাউকে প্রার্থী করা হোক।

তার পরেও দল যাকে প্রার্থী বেছে নিবে আমরা তার হয়েই কাজজ করবো। মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য আহসানুল হক পিন্টু বলেন, দলীয় প্রার্থী হিসেবে আমি মনোনয়ন চাইবো। তার পরে দল যাকে ভালো মনে করবেন, সেই সিদ্ধান্ত মেনে নিব। আরেক প্রার্থী হাবিববুর রহমান বলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন চাইবো। তবে দলের সিদ্ধান্তের বাইরে যাওয়ার কোনো সুযোগ নাই।

রাজশাহীর সময় ডট কম২৬ অক্টোবর ২০১৮





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com