বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ১১:৪৬ অপরাহ্ন

বিরাট রাজাকে কুর্নিশ

বিরাট রাজাকে কুর্নিশ

ক্রিড়া ডেস্ক : সুনীল মনোহর গাভাস্কারের বিদায় রাগিণী যখন বেহাগে বাজছে, তখনই মুম্বাইর শিবাজি পার্কে বেজে উঠছে শচীন রমেশ টেন্ডুলকারের আগমনী সুর। আরব সাগরপারের এই শহর গোটা ভারতের কাছে স্বপ্নতীর্থ। এখানে রাতারাতি ভাগ্য বদলে যায়। এলাহাবাদের খসখসে গলার এক ঢ্যাঙা ছেলে বম্বে এসে বনে গিয়েছেন গোটা দেশের যুবসমাজের স্বপ্নের নায়ক। এখানে এক ইঞ্চি জমিও কেউ কাউকে ছাড়ে না। বাড়ি তৈরির জন্য তো নয়ই, লোকাল ট্রেনেও নয়। গাভাস্কারের মায়াজাল কাটতে না কাটতেই শচীন টেন্ডুলকার চলে এলেন। ক্রিকেট ব্যাটটা জাদুছড়ি বানিয়ে ঘোরালেন দুই দশকেরও বেশি। টেন্ডুলকার নামের ট্রেনটা শেষ স্টপেজে পৌঁছানোর আগেই অন্য স্টেশন থেকে ছেড়ে দিয়েছে কোহলি এক্সপ্রেস। যাত্রা শুরু দিল্লি থেকে। কোথায় থামবেন, কেউ জানে না। তবে এটা জানা হয়ে গেছে, নামের মতোই বিরাট সব কীর্তি গড়ার জন্যই তাঁর জন্ম।

ছেলেকে নিয়ে স্বপ্ন দেখে সব বাবাই! বিরাট কোহলির বাবা প্রেম কোহলিও দেখেছিলেন। ছেলে আমার বড় হবে মনে করে নামের মধ্যেই ঢুকিয়ে দিয়েছিলেন ‘বিরাট’ শব্দটা। মহাভারতে পঞ্চপাণ্ডব তাঁদের বনবাস পর্বের শেষ অংশে, অজ্ঞাতবাসের সময় আশ্রয় নিয়েছিলেন বিরাট রাজার রাজত্বে। পাণ্ডবরা যাঁর আশ্রয়ে থাকেন, সেই মহান রাজার নামেই হয়তো ছেলের নাম রেখেছিলেন তিনি, শুধু দেখে যেতে পারেননি ছেলের বিরাট সব কীর্তি। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জেতার আগেই যে তিনি পরপারে। কাল ওয়ানডেতে সবচেয়ে কম ম্যাচে ১০ হাজার রান করার মাইলফলক স্পর্শ করার পর বীরেন্দর শেবাগ তাঁর সম্পর্কে ফেসবুকে লিখেছেন, ‘তোমার হাতের ফোনটা যত দ্রুত সফটওয়্যার আপডেট নেয়, তার চেয়েও দ্রুতগতিতে রান করে বিরাট কোহলি। ধারাবাহিকতার নতুন অর্থ দাঁড় করিয়েছে সে। মাত্র ১১ ইনিংস আগেই সে ৯০০০ রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছিল, আর আজকে (কাল) ১০০০০ রানে পৌঁছে গেল। সেই সঙ্গে ৩৭তম শতরান। কোহলি নামের এই মুগ্ধতাটা উপভোগ করুন।’ মনে রাখতে হবে, এই মানুষটা লম্বা সময় মাত্র ২২ গজ দূরে দাঁড়িয়ে শচীন টেন্ডুলকারকে ব্যাট করতে দেখেছেন।সূত্র:কালের কণ্ঠ।

তাঁর সার্টিফিকেট মানে আসলেই বিরাট কিছু! যাঁর রেকর্ডটা ভেঙে নতুন রেকর্ড গড়লেন কোহলি, সেই টেন্ডুলকারও অভিভূত কোহলির কীর্তিতে, ‘যে প্রখরতা ও ধারাবাহিকতা নিয়ে তুমি ব্যাট করছ, সেটা অভাবনীয়। ওয়ানডেতে ১০ হাজার রান করায় অভিনন্দন। রান করাটা চালিয়ে যাও।’ ভিভিএস লক্ষ্মণ টুইট করেছেন, ‘অপ্রতিরোধ্য গতিতে পাগলের মতো রান করে চলেছে কোহলি। এই রানক্ষুধা, এই ধারাবাহিকতা, এই একাগ্রতা; সত্যিই অসাধারণ।’ ক্রিকইনফো, টুইটার

রাজশাহীর সময় ডট কম২৫ অক্টোবর ২০১৮





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com