বুধবার, ২৭ মার্চ ২০১৯, ০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন

শপথে রাজি সুলতান মনসুর!

শপথে রাজি সুলতান মনসুর!

নিউজ ডেস্ক: বিএনপি নীতিগতভাবে শপথ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত দিলেও দ্বিমত পোষণ করেছে ঐক্যফ্রন্ট তথা ড. কামাল। তাদের মতে, শুধু সংসদের বাইরে থেকে নয়, সংসদের ভেতরে থেকেও সরকারের সমালোচনা করা প্রয়োজন।

এদিকে শপথ নেওয়ার চাপ রয়েছে মৌলভাবাজার-২ (কুলাউড়া) আসনে জয়ী গণফোরামের প্রার্থী সুলতান মনসুরের উপর। কুলাউড়া উপজেলা গণফোরামের আহ্বায়ক মতাহির আলম চৌধুরী বলেন, এলাকার মানুষের প্রত্যাশা পূরণে সুলতান মনসুরের এমপি হিসেবে শপথ নেওয়া উচিত। অনেক প্রতিকূলতার মধ্যে মামলা-মোকদ্দমা নিয়ে মানুষ ভোট দিয়ে তাকে নির্বাচিত করেছেন। নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে তাদের আমানত রক্ষার এখন দায়িত্ব। এমপি হিসেবে শান্তি-শৃঙ্খলা ও উন্নয়নের দায়িত্ব তার ওপর।

এ প্রসঙ্গে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ বলেন, ‘জনপ্রতিনিধি হিসেবে প্রথম ও প্রধান লক্ষ্য মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষার বাস্তবায়ন। দু’একদিনের মধ্যে ঢাকায় যাব। সবার সঙ্গে কথা হবে। তারপর সবকিছু বলতে পারব।’

সূত্র বলছে, সুলতান মনসুর শপথ গ্রহণের পক্ষেই। নির্বাচনে জিততে অনেক চড়াই-উৎরাই পার হতে হয়েছে তাকে। এ অবস্থায় নির্বাচিত হয়েও শপথ না নিলে নেতাকর্মী ও সমর্থকরা হতাশ হয়ে পড়তে পারেন। এতে ভবিষ্যতে মাঠ ধরে রাখা কঠিন হয়ে যাবে।

অন্যদিকে সিলেট-২ আসনে ঐক্যফ্রন্টের শরিক গণফোরামের নির্বাচিত প্রার্থী মোকাব্বির খান বলেন, আমি আমার নির্বাচনী এলাকার জনগণের মতামত সংগ্রহ করেছি। তারা আমাকে তাদের সিদ্ধান্ত এবং পরামর্শ জানিয়েছে। এখন আমি আমার পার্টি গণফোরামের মিটিংয়ে তা উপস্থাপন করবো। এরপর গণফোরাম যে সিদ্ধান্ত নিবে তা ঐক্যফ্রন্টের মিটিংয়ে জানানো হবে। পরে ঐক্যফ্রন্টের মিটিংয়ে সকলের সম্মিলিত মতামতে যে সিদ্ধান্ত আসবে সেটাই হবে। নির্বাচনী এলাকার জনগণ কী পরামর্শ দিয়েছেন, তাদের চাওয়া কী এমন প্রশ্নে মোকাব্বির খান বলেন, এটা আপাতত বলা যাচ্ছে না। আমি দ তা উপস্থাপন করবো। সূত্র জানিয়েছে নেতাকর্মীরা তাকে শপথ গ্রহণের জন্যই পরামর্শ দিয়েছেন।সূত্র: বাংলা নিউজ পোষ্ট।

রাজশাহীর সময় ডট কম –০৩ জানুয়ারী ২০১





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com