শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ০৭:২২ পূর্বাহ্ন

ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া শ্যালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে দুলাভাই গ্রেপ্তার

ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া শ্যালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে দুলাভাই গ্রেপ্তার

রাজশাহীর সময় ডেস্কপিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে (১২) বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তারই দুলাভাই মো. শাহীন খানের (২৫) বিরুদ্ধে।

গত দুই দিন ধরে নিখোঁজ অবস্থায় দুলাভাইয়ের নির্যাতনের শিকার ওই স্কুলছাত্রীকে নিয়ে অভিযুক্ত শাহিনের পরিবার আজ শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে বাড়িতে পৌঁছায়। গ্রামবাসী অভিযুক্ত শাহিন খানকে আটক করে নির্যাতিত ছাত্রীর স্কুল শিক্ষকদের কাছে সোপর্দ করে। খবর পেয়ে পুলিশ আজ শুক্রবার দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তার শাহিন খান উপজেলার গুলিসাখালী ইউনিয়নের বুখইতলা বান্ধবপাড়া গ্রামের মো. ইসমাইল খানের ছেলে।

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মঠবাড়িয়ার সাপলেজা ইউনিয়নের বিবিএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া ওই ছাত্রী গতকাল বুধবার (৫ ডিসেম্বর) রাতে নিজ ঘরে পড়ছিল। এ সময় পরিবারের লোকজন ঘুমিয়েছিলেন। এই সুযোগে ওই ছাত্রীর মুখ চেপে তুলে নিয়ে যান তার দুলাভাই মো. শাহীন খান। সকালে ওই স্কুলছাত্রীকে ঘরে না পেয়ে তার বাবা মঠবাড়িয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

এদিকে, দুলাভাই শাহীন মেয়েটিকে বাড়ি থেকে এক কিলোমিটার দূরে একটি নির্জন ঘরে আটকে ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি জানাজানি হলে শাহীনের পরিবারের লোকজন আজ শুক্রবার সকালে নির্যাতিত মেয়েটিকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌঁছে দেয়। এরপর মেয়েটি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। পরে স্কুল কর্তৃপক্ষ গ্রামবাসীর সহায়তায় শাহীন খানকে আটক করে থানায় খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে শাহীনকে গ্রেপ্তার করে।

সাপলেজা বিবিএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মাহফুজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী লিখিত অভিযোগ দিলে গ্রামবাসীর সহায়তায় অভিযুক্তকে আটক করে থানায় সোপর্দ করা হয়।

মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শওকত আনোয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্ত দুলাভাইকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। অভিযোগ পেলেই আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজশাহীর সময় ডট কম ডিসেম্বর, ২০১৮





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com