মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০১:৫৪ পূর্বাহ্ন

হাসপাতালে কর্তৃপক্ষের অবহেলায় মা ও শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ

হাসপাতালে কর্তৃপক্ষের অবহেলায় মা ও শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ

রাজশাহীর সময় ডেস্ক : মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় গর্ভবতী মা ও শিশু মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে সেন্ট্রাল জেনারেল হাসপাতাল প্রাইভেট লিমিটেড এ ঘটনাটি ঘটেছে।

নিহত মা সুলতানা আক্তার (২১) উপজেলার সাগরনাল ইউনিয়নের রানীমুরা গ্রামের বাসিন্দা রাজা মিয়া স্ত্রী। রাজা মিয়া অভিযোগ করে বলেন, সুলতানার ডেলিভারি ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট শুরু হলে সকাল সাড়ে ১১টায় সেন্ট্রাল হাসপাতালে নিয়ে আসি। হাসপাতালের ডাক্তার রোগী দেখে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বলেন রোগীর অবস্থা ভাল, নরমাল ডেলিভারি হবে। পরে রোগীকে ডেলিভারি রুমে নিয়ে অক্সিজেন লাগিয়ে রাখা হয়। সেই সাথে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ হাসপাতালের সাদা প্যাডে আমার স্বাক্ষর নেন। সেখানে কি লিখেছেন তা আমাকে দেখাননি।

দুপুর ১২টায় ডাক্তার জানান, মৃত বাচ্চা হয়েছে তবে রোগীর অবস্থা ভাল। কিছুক্ষণ পর বলেন, রোগীর অবস্থা ভালো নয়। আপনারা সিলেট নিয়ে যান। কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কোন অ্যাম্বুলেন্স দিতে পারেনি। দুপুর ১টায় বলেন রোগী মারা গেছে। অথচ এ সময়ের মধ্যে আমাদেরকে রোগী দেখতে দেয়া হয়নি। এই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় ইতোপূর্বে আরও একটি বাচ্চা মারা যাওয়ার অভিযোগ আছে।
এ বিষয়ে সেন্ট্রাল জেনারেল হাসপাতালের চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন শামীম ও কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সমির চন্দ্র পাল বলেন, রোগীর অবস্থা ভালো ছিল না। প্রচন্ড শ্বাসকষ্ট ছিল। দুপুর ১২টায় মৃত বাচ্চা নরমাল প্রসব হয়। এক ঘন্টা পর রোগী মারা যায়।

অবস্থা ভালো না হলে রোগী রাখেন কেন এবং সাদা কাগজে স্বাক্ষর নিলেন কেন? এমন প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেননি তিনি।

এ বিষয়ে জুড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, লোকমুখে শুনে হাসপাতালে পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে আমার কাছে কেউ অভিযোগ নিয়ে আসেনি অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যাবস্থা নেব।

রাজশাহীর সময় ডট কম ডিসেম্বর, ২০১৮





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com