মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০২:৪৭ পূর্বাহ্ন

ধানের শীষের হাল ধরতে চান ছাত্রনেতা হাসান মামুন : জনসমর্থনে এগিয়ে

ধানের শীষের হাল ধরতে চান ছাত্রনেতা হাসান মামুন : জনসমর্থনে এগিয়ে

গলাচিপা (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা: পটুয়াখালী-৩(গলাচিপা-দশমিনা) আসনে বিএনপি মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে জনপ্রিয়তার দিক দিয়ে শীর্ষে হাসান মামুন।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য। বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রির দ্বিতীয় দিনে গতকাল মঙ্গলবার ফরম সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন হাসান মামুন।

পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলা রনগোপালদী গ্রামের সন্তান হলেও শিক্ষিত, সুবক্তা ও সদালাপী হিসেবে দুই উপজেলার মানুষের কাছে গ্রহনযোগ্যতা রয়েছে তার। ছাত্র রাজনীতি করার সময় গলাচিপা-দশমিনা উপজেলার তরুনদের কর্মসংস্থানে বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। কোনো রকম সুবিধা গ্রহন ছাড়াই তিনি এ কাজ করেছিলেন।

২০১০ সালে ছাত্ররাজনীতি থেকে অবসর নেয়ার পর থেকেই তিনি রাজনীতিতে সক্রিয়। বিভিন্ন সভা-সমাবেশে তার অংশগ্রহন ছিল উল্লেখযোগ্য। এ কারণে তাকে কারাবরণও করতে হয়েছে।

স্থানীয় নেতাকর্মীরা জানান, হাসান মামুন কোন্দলের রাজনীতি পছন্দ করেন না। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষ যারাই তার কাছে গিয়েছে তাদেরকে তিনি গ্রহন করে নিয়েছে এবং পাশে দাঁড়িয়েছে। এ সুবাদে দুই উপজেলার নারী পুরুষ সকল ভেদাভেদ ভুলে হাসান মামুনকে প্রার্থী হিসেবে দেখতে চায়। দল-মত নির্বিশেষে সকলের দৃষ্টি এখন তার দিকে।

বিশেষ করে তরুন ভোটাররা বেশি ঝুঁকছে। একাদশ নির্বাচনে কেন্দ্রীয় নেতারা যদি মনোয়ন দেয়ার বিষয় ভুল না করে হাসান মামুনকে মনোনয়ন দেয়া হয় তবে আওয়ামীলীগের ঘাটি হিসেবে পরিচিত এই আসনটিতে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বীতা হবে বলে সচেতন মহল ধারনা করছে। আর অন্য কাউকে মনোনয়ন দেয়া হলে নির্বাচনী আমেজ বজায় থাকবে না।

এদিকে ১৯৭৯সালের নির্বাচন থেকে দশম সংসদ নির্বাচন পর্যন্ত দশমিনা উপজেলা থেকে আ’লীগ ও বিএনপির কোনো প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়া হয়নি। এ কারণে দশমিনা মানুষের মাঝে রয়েছে এমপি না হওয়ার ক্ষোভ। তাই বিএনপি থেকে যদি হাসান মামুনকে মনোনয়ন দেয়া হলে এ আসনে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি হতে পারে। হাসান মামুন বিএনপি থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহে পরপরই এ আসনটিতে ভোটারদের মাঝে উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা গেছে।

মনোনয়ন কেনার পর তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় হাসান মামুন জানান, আমি বিএনপির মনোনয়ন পত্র কিনেছি। যদি দল থেকে আমাকে মনোনয়ন দেয়া হয় তবে পটুয়াখালী-৩ আসন থেকে বিপুল ভোটেরা ব্যবধানে জয়ী হবো ইনশাআল্লাহ।

গলাচিপা-দশমিনার মানুষের ভাগ্যের উন্নয়নে অবদান রাখব। আমার বিশ্বাস এই এলাকার মানুষ আর ভুল করবে না। জনতার রায়ে আসন্ন নির্বাচনে বিএনপির ধানের শীষ জয়ী হবে বলেও মনে করেন তিনি।   

রাজশাহীর সময় ডট কম০৫ ডিসেম্বর ২০১৮





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com