মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৮:৩৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিন : মেয়রপত্নী রেনী চারঘাটে পোস্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে আ’লীগ-বিএনপি’র ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া এই নির্বাচন বাংলাদেশকে রক্ষা করার নির্বাচন রাবিতে মিনু বিএনপি প্রার্থী মঈন খানের নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা চালিয়েছে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ টুঙ্গীপাড়া থেকে বৃহস্পতিবার ফেরার পথে ৭টি পথসভা করবেন প্রধানমন্ত্রী বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা নির্বাচনে সহিংসতা থেকে সবাইকে দূরে থাকার আহ্বান : মার্কিন রাষ্ট্রদূত জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত : বগি লাইনে তোলার চেষ্টা আইএসপিআরের নতুন পরিচালক আবদুল্লা ইবনে জায়েদ রাজশাহী নগরীতে বিএনপি’র অফিসে ভাঙচুর, নৌকায় অগ্নিসংযোগ
১১ জনের দুই অঙ্ক ছোঁয়ার বিরল রেকর্ড

১১ জনের দুই অঙ্ক ছোঁয়ার বিরল রেকর্ড

ক্রিড়া ডেস্ক : ঢাকা টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ তুলেছে ৫০৮ রান, যা বাংলাদেশের টেস্ট ইতিহাসের অন্যতম সেরা ইনিংস। টেস্টে বাংলাদেশের ৫০০ ছাড়ানো ইনিংস মাত্র নয়টি। সর্বোচ্চ ইনিংসের তালিকায় এটি সপ্তম অবস্থানে। কিন্তু এক ইনিংসে বাংলাদেশের ১১ ব্যাটসম্যানেরই দুই অঙ্ক ছোঁয়ার কীর্তি এই প্রথম। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে সব উইকেটের জুটিও দুই অঙ্ক পেরিয়েছে।

সৌম্য সরকার ও সাদমান ইসলামের উদ্বোধনী জুটি থেকে আসে ৪২ রান। তবে একশ’ ছাড়ানো জুটি মাত্র একটি। ষষ্ঠ উইকেটে সাকিবকে সঙ্গে নিয়ে মাহমুদউল্লাহ যোগ করেন ১১১ রান। সপ্তম উইকেটে এসে দারুণ সঙ্গ দিয়েছেন লিটন কুমার দাস। খেলছিলেন জাতীয় ক্রিকেট লিগ। মুশফিক দ্বিতীয় টেস্টের দু’দিন আগে চোট পাওয়ায় জুরুরিভিত্তিতে ডাকা হয় তাকে। রান খরায় থাকা লিটন এসেই করলেন হাফ সেঞ্চুরি।

মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে সপ্তম উইকেটে ৯২ রান যোগ করেন তিনি। লিটন করেন ৫৪। সবচেয়ে কম রানের জুটি (১০) হয়েছে সাকিব ও সাদমানের চতুর্থ উইকেটে। শেষ উইকেটেও নাঈম ইসলামকে সঙ্গে নিয়ে মাহমুদউল্লাহ তোলেন ৩৬ রান। নবম উইকেটে তাইজুল ভালো সঙ্গ দিয়েছেন সহ-অধিনায়ককে। তারা যোগ করেন ৫৬ রান। তৃতীয় উইকেটে মোহাম্মদ মিঠুন ও সাদমান ৬৪ রান করে বড় স্কোরের পথে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান। মাহমুদউল্লাহর জুটি পাঁচজনের সঙ্গে। সাদমানের চার ও সাকিব তিনজনের সঙ্গে জুটি গড়েছেন।

এই মিরপুরেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আগের টেস্টে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি করেন মুশফিকুর রহিম। অথচ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ডাবল ফিগারে যাওয়া সব ব্যাটসম্যানের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বনিু রান মুশফিকেরই। দশের ঘরে রান করেছেন সৌম্য সরকার, মুশফিক, মেহেদী হাসান মিরাজ ও নাঈম হাসান।

ঠিক ২৯-এ ফিরেছেন দুই ‘ম’- মুমিনুল হক ও মোহাম্মদ মিঠুন। ২৬ করেছেন তাইজুল। একমাত্র সেঞ্চুরিয়ান মাহমুদউল্লাহ (১৩৬)। হাফ সেঞ্চুরি করেছেন অভিষিক্ত সাদমান ইসলাম (৭৬), সাকিব (৮০) ও লিটন (৫৪)। এক ইনিংসে ১১ ব্যাটসম্যানের সবার অন্তত দুই অঙ্ক ছোঁয়ার কীর্তি টেস্ট ইতিহাসেই বিরল। সব মিলিয়ে ২৩৩১ টেস্টে এমন ঘটনা এ নিয়ে ঘটল মাত্র ১৪ বার।

সবার দুই অঙ্কে যাওয়া নিয়ে নির্বাচক হাবিবুল বাশার বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটে সবার অবদান ম্যাচ সহজ করে দেয়। দু’একজনের উপর বেশি চাপ পড়ে না। দলের জন্য এটা ইতিবাচক।’ শুধু রান না, সবাই বলও খেলেছে দুই অঙ্কের বেশি।সূত্র:যুগান্তর।

উইকেটে কাটানো সময়টাও তাই! মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘আমাদের ব্যাটসম্যানরা অনেক ভালো ব্যাটিং করেছে। আমাদের সবাই অন্তত দুই অঙ্ক ছুঁয়েছে। আমার ও সাকিবের ইনিংসটা বড় হয়েছে। সাদমান খুব ভালো ব্যাটিং করেছে। সবারই শুরুটা ভালো হয়েছে। কিন্তু এই উইকেটে রান করা এত সহজ ছিল না। শেষদিকের ব্যাটসম্যানরাও দারুণসহায়তা করেছে।’

রাজশাহীর সময় ডট কম০২ ডিসেম্বর ২০১৮





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com