শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ১২:৪৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
পবা-মোহনপুর-রাজশাহী ৩ আসনের নৌকার মাঝি আয়েনের পক্ষে কাটাখালীতে নির্বাচনী প্রচারনায় পৌর মেয়র রাজশাহী নগরীতে ইয়াবাসহ আটক-১ গর্বের সেনাবাহিনীই কেন তাদের লক্ষ্যবস্তু! আওয়ামী লীগের আছে উন্নয়ন, বিএনপি’র প্রচারণায় ব্যর্থতা নির্বাচনে ভোট চাইতে গ্রামীণফোনের সাথে চুক্তি করল বিএনপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চূড়ান্ত বৈঠকের প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি তথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নগরীতে কিন্ডার গার্টেন এর উদ্দ্যেগে বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত নগরীতে নৌকার পক্ষে ২৬ নং ওয়ার্ড (পূর্ব) আ’লীগ ও ওয়ার্কার্স পার্টির যৌথ প্রচার মিছিল নগরীর ২৯ নং ওয়ার্ড জামায়াতের সাবেক আমীর গিয়াস গ্রেফতার রাজশাহীতে ট্রাক-ব্যাটারিচালিত ভ্যানের সংঘর্ষে ২জন নারী নিহত
আ’লীগ-বিএনপি সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত-১২, বিএনপি অফিস ভাঙচুর

আ’লীগ-বিএনপি সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত-১২, বিএনপি অফিস ভাঙচুর

রাজশাহীর সময় ডেস্কভৈরবে বিএনপির সভায় হামলার ঘটনা নিয়ে আওয়ামী লীগ-বিএনপি সংঘর্ষে পুলিশসহ ১২ জন আহত হয়েছেন। এ সময় কয়েকটি দোকানসহ বিএনপি অফিস ভাঙচুর করা হয়।

রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় শহরের চণ্ডিবের এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ভৈরব উপজেলা বিএনপি একটি নির্বাচনী কর্মিসভা চলছিল।

আহতরা হলেন পুলিশের এসআই অভিজিৎ, কনেস্টেবল আবদুল হাকিম, কনেস্টেবল আবদুর রহমান, উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম, ওয়ার্ড যুবদল সভাপতি আক্তার হোসেন, যুবদল নেতা জসীম উদ্দিন, পৌর যুবলীগ সভাপতি ইমন রহমান ইমন, ছাত্রলীগ নেতা রাকিব, সোহরাব, প্রান্ত, আমজাদ, সুব্রত।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। সংঘর্ষের সময় আক্তার নামের এক ব্যক্তির ঔষধের ফার্মেসিসহ তিনটি দোকান ভাঙচুর করা হয়। এদিকে রাত সাড়ে ৮ টায় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ লীগের কর্মীরা উপজেলা বিএনপির শহরের ডালপট্রির অফিস ও একটি ভেনিস বাংলা রেস্টুরেন্ট ভাংচুর করে।

রোববার সন্ধ্যার পর উপজেলা বিএনপির নির্বাচনী একটি জনসভা শহরের চন্ডিবের এলাকায় শুরু হয়। এ সভাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্য সংঘর্ষ শুরু হলে পুলিশসহ ১২ জন আহত হয়।

এ বিষয়ে ভৈরব পৌর বিএনপির সভাপতি হাজি শাহীন জানান, আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চন্ডিবের এলাকায় বিএনপির একটি কর্মিসভায় আওয়ামী লীগের কর্মীরা হামলা চালালে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম অভিযোগ করেন যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীরা আমাদের সভার ওপর আতর্কিতভাবে হামলা চালায়। তারা ভৈরব বাজারে গিয়ে বিএনপির অফিসসহ একটি রেস্টুরেন্ট ভাংচুর করে বলে তিনি জানান।

ভৈরব পৌর যুবলীগের সভাপতি ইমরান হোসেন ইমন জানান, আমাদের কর্মীরা ছাত্রলীগের একটি অনুষ্ঠানের দাওয়াত দিতে চন্ডিবের গেলে বিএনপির কর্মীরা আমাদের কর্মীর ওপর আক্রমণ করে।

ভৈরব থানার উপ-পরিদর্শক অভিজিৎ জানান, দু’দলের সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এ সময় সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে তিন পুলিশও আহত হয় বলে তিনি জানান।

রাজশাহীর সময় ডট কম ১৯ নভেম্বর, ২০১৮





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com