মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৩:১৯ পূর্বাহ্ন

এবার সাংবাদিকদের সামনে মুখ খুললেন কঙ্গনা পাশে রাজকুমার

এবার সাংবাদিকদের সামনে মুখ খুললেন কঙ্গনা পাশে রাজকুমার

তামান্না হাবিব নিশু : এবার সাংবাদিকদের সামনে মুখ খুললেন কঙ্গনা। ঘটনা প্রসঙ্গে কঙ্গনার পাশে দাঁড়িয়ে তাঁকে ‘সাহসী’ বলে আখ্যা দিয়েছেন সহ অভিনেতা রাজকুমার রাও।

‘জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া’র গানের টিজার লঞ্চ অনুষ্ঠানে জাস্টিন রাও নামে এক সাংবাদিকের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন কঙ্গনা। এই সময় ছবির প্রযোজক একতা কাপুর পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করলেও চুপ থাকতে দেখা যায় রাজকুমারকে। পরে তাঁকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে অভিনেতা বলেন, “কঙ্গনা যা বলেছে সেটা ওর নিজস্ব অভিমত। আমরা একটা স্বাধীন দেশে বাস করি। আমাদের সবারই নিজস্ব মতামত আছে। আমি আশা করব কঙ্গনা আরও মানুষের সমর্থন পাবে। অনেকেই ওর সততার জন্য ওকে অনেকেই পছন্দ করেন। ও সত্যিই সাহসী। ওর কাজের মাধ্যমে অনেককেই উৎসাহ দেয়। মাঝে মাঝে আমার মনে হয় কীভাবে কঙ্গনা এত নির্ভিক হতে পারে।

এদিকে কঙ্গনা-জাস্টিনের বচসার প্রেক্ষিতে সাংবাদিকরা এন্টারটেনমেন্ট জার্নালিস্টস গিল্ড জানায় কঙ্গনা ক্ষমা না চাইলে তাঁকে বয়কট করা হবে। পরিচালক একতা কাপুর সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ঘটনার জন্য ক্ষমা চেয়ে নিলেও চুপ ছিলেন কঙ্গনা। তাঁর বোন রঙ্গোলি চান্দেল ট্যুইট করে জানান কঙ্গনা কোনও ভাবেই ক্ষমা চাইবেন না।

অতি সম্প্রতি এই বিষয়ে একটি ভিডিয়ো রেকর্ড করেছেন কঙ্গনা। সেটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন রঙ্গোলি। ভিডিয়ো বার্তায় কঙ্গনা বলেছেন, “সব জায়গাতেই ভাল লোকেদের পাশাপাশি খারাপ লোকেরাও রয়েছে। মিডিয়া আমাকে অনেক উৎসাহিত করেছে। তার জন্য আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। কিন্তু মিডিয়ার একাংশ প্রতিনিয়ত দেশের গরিমাকে ক্ষুন্ন করছে। দেশের একতাকে নষ্ট করার প্ররোচনা দিচ্ছেন। তাঁরা মিথ্যা প্রচার করেন। এমনই একজন সাংবাদিকের সঙ্গে সেদিন আমার কথা হয়েছিল। আমি তাঁর প্রশ্নের উত্তর দিতে অস্বীকার করি। এর আগে প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধ করতে এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার হয়ে আমি প্রচার করি। তখন আমাকে নিয়ে হাসি-ঠাট্টা করেছিলেন ওই সাংবাদিক। তারপর পশুহত্যা নিয়ে আমার প্রচারের সময়েও একই কাজ করেন তিনি। আমি শহিদ নিয়ে ছবি তৈরি করলেও মশকরা করেন ওই সাংবাদিক।”

কঙ্গনা আরও বলেন, “কোনও বিষয় নিয়ে তর্ক-বিতর্ক করা একজন সাংবাদিকের অধিকার। কিছু লোকজন তা না করে গালিগালাজ করে পেশাটাকেই নিচে নামিয়ে দেন। তোমাদের মত লোক নেই বলেই আমি দেশের সবচেয়ে সফল অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন হয়েছি। তোমরা চাইলে আমাকে বয়কট করতেই পারো। তাতে আমার কিছু যায় আসে না।”

প্রসঙ্গত, জাস্টিন রাওয়ের সঙ্গে কঙ্গনার বিতর্কের সূত্রপাত হয়েছিল মণিকর্ণিকা ছবির মুক্তির সময়। জাস্টিনের প্রশ্ন ছিল পুলওয়ামা হামলার পরও কীভাবে কঙ্গনার ছবি মণিকর্ণিকা পাকিস্তানে মুক্তি পায়? এই প্রসঙ্গে কঙ্গনার উত্তরই ট্যুইট করেছিলেন জাস্টিন।

সম্প্রতি, ‘জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া’র টিজার লঞ্চ অনুষ্ঠানে জাস্টিনের প্রশ্নের উত্তর দিতে অস্বীকার করেন কঙ্গনা। তিনি অভিযোগ করেন তাঁর ছবি মণিকর্ণিকার খারাপ প্রচার করেছেন ওই সাংবাদিক। এই থেকেই বচসার সূত্রপাত হয়।

রাজশাহীর সময় ডট কম১১ জুলাই ২০১৯





© All rights reserved © 2019 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com