রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৫:১৯ পূর্বাহ্ন

সড়কপথে চার ঘণ্টায় ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম!

সড়কপথে চার ঘণ্টায় ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম!

রাজশাহীর সময় ডেস্ক : ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে সৌদিয়া পরিবহনের একটি বাস গতকাল শনিবার দুপুর ১২টায় চট্টগ্রামের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। মাত্র চার ঘণ্টা পর বিকেল ৪টায় চট্টগ্রাম চলে আসে বাসটি। একইভাবে ঢাকার কলাবাগান থেকে ছেড়ে আসা বিলাসবহুল গ্রিন লাইন পরিবহনের একটি বাস সাড়ে চার ঘণ্টায় চট্টগ্রাম চলে আসে।

গতকাল শুধু এই দুটি পরিবহন নয়, দ্বিতীয় গোমতী ও দ্বিতীয় মেঘনা সেতু চালু হওয়ায় সব ধরনের যানবাহন খুব কম সময়ের মধ্যে ঢাকা থেকে বন্দরনগর চট্টগ্রামে এসেছে।

দেশের অর্থনীতির হৃৎপিণ্ড বলা হয়ে থাকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ককে। চার লেনের এই মহাসড়কের যানবাহনগুলো এত দিন দুই লেনের গোমতী ও মেঘনা সেতুতে ওঠার সময়  যানজটের কারণে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে থাকত। প্রত্যেকটি গাড়িকে গড়ে দুই থেকে তিন ঘণ্টা যানজটে আটকে থাকতে হতো। ঈদের ছুটির আগে-পরে যানজট আরো ভয়াবহ আকার ধারণ করত। ১০-১২ ঘণ্টাও যানজটে পড়তে হতো ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে চলাচলকারী যানবাহনগুলোকে। এতে প্রতিদিনই লাখো যাত্রীকে চরম দুর্ভোগ ও ভোগান্তিতে পড়তে হতো।

গতকাল সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বহুপ্রতীক্ষিত সেতু দুটি উদ্বোধনের পর যানজটের চিত্র পাল্টে গেছে। দ্বিতীয় এই সেতু দুটি চালু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এর সুফল পাচ্ছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চলাচলকারী যাত্রীরা। আসন্ন ঈদে ঘরমুখো মানুষ এবার যানজট ছাড়াই ওই দুই সেতু এলাকা পাড়ি দিতে পারবে বলে সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন।

মাত্র চার ঘণ্টায় চট্টগ্রাম আসার কথা জানিয়ে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর গতকাল বিকেলে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘একটি সভায় যোগ দেওয়ার জন্য শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রাম থেকে গাড়ি করে ঢাকায় যাওয়ার সময় মেঘনা সেতু এলাকায় আড়াই ঘণ্টা যানজটে পড়ি। অথচ শনিবার সভা শেষে সোয়া ২টায় গাড়িতে উঠে সোয়া ৬টার দিকে চট্টগ্রামের নিজ বাসায় চলে এসেছি।’

আন্ত জেলা বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. কফিল উদ্দিন আহমদ বলেন, ‘ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ওই সেতু এলাকায় দীর্ঘ যানজটের কারণে শুধু পরিবহন শ্রমিকরাই নয়, যাত্রীরাও সীমাহীন দুর্ভোগে পড়তেন এত দিন। নতুন সেতু দিয়ে গাড়ি চলাচল শুরু হওয়ায় এর সুফল সবাই পাচ্ছেন।’সূত্র:কালের কণ্ঠ।

নগরের এ কে খান এলাকায় গ্রিন লাইন পরিবহনের বিক্রয়কর্মী মেহেদী হাসান রিয়াদ বলেন, ‘আগে প্রতিদিন গড়ে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম আসতে ৭ থেকে ৯ ঘণ্টা লাগত। আর এখন আমাদের গাড়িগুলো সাড়ে চার থেকে পাঁচ ঘণ্টায় ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম চলে আসছে।’

রাজশাহীর সময় ডট কম২৬ মে ২০১৯





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com