বুধবার, ২২ মে ২০১৯, ০১:০৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ষড়যন্ত্র হয় ভেতর থেকেই, প্রসঙ্গ রাবিতে ভিসি পদে সাময়িক শূণ্যতা নিয়ে মিথ্যাচার, কোর্ট নোটিশ অতঃপর… ফায়ার সার্ভিস উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী যথেষ্ট আন্তরিক; রাজশাহীতে ফায়ার ডিজি রাজশাহীর মোহনপুরে ‘মানসিক প্রতিবন্ধী’ নারীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার নিম্ন মানের চাল কেনার অভিযোগে রাজশাহীতে গোডাউন সিলগালা রাজশাহীতে স্কুলছাত্রী বর্ষা আত্মহত্যার ঘটনায় ওসি প্রত্যাহার কর্ণেল পরিচয়ধারী প্রতারক চক্রের মূল হোতা মাহবুর গ্রেফতার, রিমান্ড শেষে কারাগারে বিএনপি ক্ষমতায় থাকলে কৃষকদের এই দুরাবস্থা অবস্থা হতো না : মিনু ফুটবলকে বিদায় জানালেন জাভি হার্নান্দেজ অডিশনের জন্য অচেনা অভিনেতার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে হয়েছিল অদিতিকে রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে আটক -৩৯
২০৩০ সালের মধ্যে মাথাপিছু আয়ে ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে বাংলাদেশ

২০৩০ সালের মধ্যে মাথাপিছু আয়ে ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে বাংলাদেশ

রাজশাহীর সময় ডেস্ক : যত দিন যাচ্ছে ততই এশিয়া মহাদেশের অন্যতম অর্থনৈতিক ভাবে শক্তিশালী দেশ হিসেবে আবির্ভূত হতে চলেছে বাংলাদেশ। দীর্ঘ সময় ধরে একই রাজনৈতিক দল ক্ষমতায় থাকা, দেশে বিদ্যমান রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, যোগোপযোগী উন্নয়ন কর্মকাণ্ড, অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে শিল্প বিপ্লব ইত্যাদির সুফল পাচ্ছে বাংলাদেশ। ফলশ্রুতিতে বেড়ে চলেছে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয়। সম্প্রতি বহুজাতিক স্টান্ডার্ড চার্টার্ড (স্ট্যানচার্ট) ব্যাংকের এক গবেষণায়ও বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রার কথা অর্থনৈতিক সম্ভাবনার চিত্র ফুটে উঠেছে। স্ট্যানচার্টের প্রধান অর্থনীতিবিদ ডেভিড ম্যান ও ব্যাংকের ভারতীয় গবেষণা শাখার প্রধান মধুর ঝা এ গবেষণা পরিচালনা করেছেন।

গবেষণায় জানানো হয়, মাথাপিছু আয়ের হিসেবে আগামী এক দশকে ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে বাংলাদেশ। ব্যাংকটি বলছে, বর্তমানে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ১,৬০০ ডলার ২০৩০ সালে এই আয় দাঁড়াবে ৫,৭০০ ডলার। অন্যদিকে বর্তমানে ভারতে মাথাপিছু আয় ১,৯০০ ডলার কিন্তু ২০৩০ সালে হবে ৫,৪০০ ডলার যা বাংলাদেশের থেকে ৩০০ ডলার কম।

স্ট্যানচার্ট ব্যাংকের উক্ত গবেষণায় বলা হয়েছে ২০৩০ সালের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ঘটবে সবচেয়ে বেশি, কারণ এসব দেশের লোকসংখ্যা হবে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার এক পঞ্চমাংশ। সেক্ষেত্রে বিশাল জনসংখ্যা ভারতের জন্য আশীর্বাদ হয়ে দাঁড়াবে। অন্যদিকে স্বাস্থ্য ও শিক্ষাখাতের বিনিয়োগ থেকে সুফল পেতে শুরু করবে বাংলাদেশ যা তাদের উৎপাদনশীলতা বাড়াতে সাহায্য করবে।

গবেষণায় আরো বলা হয়েছে, ২০২০ সাল হবে এশিয়ানদের যুগ। পুরো দশক ধরে এশিয়ার দেশগুলোর প্রবৃদ্ধি ৭ শতাংশ বজায় থাকবে। বিশেষ করে বাংলাদেশ, ভারত, ভিয়েতনাম, মিয়ানমার ও ফিলিপাইনে প্রবৃদ্ধির ধারা অব্যাহত থাকবে।

এশিয়াতে এই পরিবর্তন ঘটতে শুরু করেছে ২০১০ সাল থেকে। তখন থেকেই স্ট্যানডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক এশিয়ার এই দেশগুলোর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির উপর নজর রাখতে শুরু করে বলে গবেষণায় বলা হয়েছে।

গত এক দশকে বাংলাদেশের বিস্ময়কর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি লক্ষ্য করা গেছে। গত এক দশকে সাত শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধি বাংলাদেশকে একটি মধ্যম আয়ের অর্থনৈতিক দেশের মর্যাদায় অভিষিক্ত করেছে।

রাজশাহীর সময় ডট কম – ১৫ মে, ২০১৯





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com