বুধবার, ২২ মে ২০১৯, ০১:২৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ষড়যন্ত্র হয় ভেতর থেকেই, প্রসঙ্গ রাবিতে ভিসি পদে সাময়িক শূণ্যতা নিয়ে মিথ্যাচার, কোর্ট নোটিশ অতঃপর… ফায়ার সার্ভিস উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী যথেষ্ট আন্তরিক; রাজশাহীতে ফায়ার ডিজি রাজশাহীর মোহনপুরে ‘মানসিক প্রতিবন্ধী’ নারীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার নিম্ন মানের চাল কেনার অভিযোগে রাজশাহীতে গোডাউন সিলগালা রাজশাহীতে স্কুলছাত্রী বর্ষা আত্মহত্যার ঘটনায় ওসি প্রত্যাহার কর্ণেল পরিচয়ধারী প্রতারক চক্রের মূল হোতা মাহবুর গ্রেফতার, রিমান্ড শেষে কারাগারে বিএনপি ক্ষমতায় থাকলে কৃষকদের এই দুরাবস্থা অবস্থা হতো না : মিনু ফুটবলকে বিদায় জানালেন জাভি হার্নান্দেজ অডিশনের জন্য অচেনা অভিনেতার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে হয়েছিল অদিতিকে রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে আটক -৩৯
গঠনতন্ত্রের দোহাই দিয়ে অর্থের বিনিময়ে পদ, ছাঁটাইয়ের পরিকল্পনায় তোলপাড় সিলেট বিএনপিতে

গঠনতন্ত্রের দোহাই দিয়ে অর্থের বিনিময়ে পদ, ছাঁটাইয়ের পরিকল্পনায় তোলপাড় সিলেট বিএনপিতে

রাজশাহীর সময় ডেস্ক :  দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সিলেট জেলা বিএনপির কার্যকরী কমিটির সদস্য সংখ্যা ১৫১ জন হওয়ার কথা। কিন্তু সেই কমিটিতে আছেন ২৮৫ জন। এমন পরিস্থিতিতে কমিটির আকার পরিবর্তন করার জন্য তৎপর হয়ে উঠেছে জেলা কমিটির নেতারা। যার কারণে ছাঁটাইয়ের অস্বস্তিতে পড়েছে সিলেট বিএনপির কর্মীরা।

তারা বলছেন, অর্থের বিনিময়ে পদ দিয়ে গঠনতন্ত্রের পরিপন্থী কমিটি গঠন করে আবার নতুন করে বাণিজ্য করার পরিকল্পনা থেকেই ছাঁটাইয়ের পায়তারা করা হচ্ছে। বিভিন্ন সূত্রের বরাতে এমন অভিযোগের বিষয়ে জানা গেছে।সূত্র: বাংলা নিউজ ব্যাংক

সিলেট জেলা বিএনপির একটি সূত্র বলছে, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত জেলা বিএনপির কার্যকরী কমিটির সভায় তৃণমূল থেকে শুরু করে জেলা কমিটি পুনর্গঠনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। ওই সভায় জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী জেলা কমিটির সদস্য সংখ্যা কমিয়ে আনার বিষয়ে কথা বললে হৈচৈ শুরু করে দেন উপস্থিত নেতাকর্মীরা। পরে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ বিষয়টিকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসেন এবং কমিটিতে স্থান পাওয়াদের ক্ষেত্রে অবশ্যই বিগত দিনে নির্যাতিত ও ত্যাগী নেতাদের অন্তর্ভুক্ত করার বিষয়ে তাগিদ দেন এবং নেতা কর্মীদের আশ্বস্ত করেন।

জানা গেছে, এরই মধ্যে জেলা বিএনপির কমিটি বিলুপ্ত করে আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। আর চলতি মাসের মধ্যেই দলের সিলেট জেলা ও মহানগর শাখা ‘পুনর্গঠন’ করা হবে। পাশাপাশি মেয়াদোত্তীর্ণ দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনেরও নতুন কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হবে বলেও জানা গেছে।

দলীয় সূত্র জানায়, গত ৮ এপ্রিল সিলেট বিএনপির নেতা-কর্মীদের সঙ্গে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডন থেকে স্কাইপের মাধ্যমে কথা বলেন। বৈঠকে তারেক দলের সাংগঠনিক অবস্থার খোঁজ-খবরের পাশাপাশি জেলার আওতাধীন ১৭টি উপজেলা ও পৌর ইউনিটের নতুন কমিটি গঠনের ব্যাপারে মতামত ব্যক্ত করেন। আগামী ১৫ মের মধ্যে জেলা কার্যকরী কমিটির সভা ডেকে ইউনিট ভুক্ত কমিটিগুলো পুনর্গঠনের প্রক্রিয়া সম্পর্কে কেন্দ্রে রিপোর্ট পাঠানোরও নির্দেশনা দেন তিনি।

গুঞ্জন উঠেছে, নতুন করে বাণিজ্যের জন্যই ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান কমিটি ছোট করার নামে নতুন বাণিজ্যের পরিকল্পনা আঁটছেন। এমনটা চললে আগামীতে জেলা বিএনপির কমিটিতে পরীক্ষিত ও যোগ্য নেতা খুঁজে পাওয়া যাবে না বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন জেলা বিএনপির একাধিক পদ বঞ্চিত নেতা।

রাজশাহীর সময় ডট কম – মে, ২০১৯





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com