শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ১২:২০ অপরাহ্ন

আজই উৎসব জুভেন্টাসের!

আজই উৎসব জুভেন্টাসের!

ক্রীড়া ডেস্ক : ৩৮ ম্যাচের লিগে ম্যাচ বাকি আর মাত্র ৭টি। শীর্ষে থাকা জুভেন্টাসের পয়েন্ট ৮৪, দ্বিতীয় স্থানে থাকা নাপোলির পয়েন্ট ৬৪। ব্যবধান ২০ পয়েন্টের আর বাকি ৭ ম্যাচ থেকে সর্বোচ্চ সংগ্রহ করা যাবে ২১ পয়েন্ট। ৩২তম রাউন্ড শুরুর আগে সমীকরণটা এই পর্যায়ে। আজ যদি এসপিএএলের সঙ্গে জিতে যায় জুভেন্টাস তাহলে রবিবার শিয়েভো ভেরোনার বিপক্ষে নাপোলি জিতলেও ব্যবধানটা ২০ পয়েন্টেরই থাকবে। তখন বাকি ৬ রাউন্ডে জুভেন্টাস সব ম্যাচ হারলে আর নাপোলি সব জিতলেও ব্যবধান থেকে যাবে ২ পয়েন্টের! তাই গাণিতিক হিসাবে বলা যায়, আজ জিতলেই স্কুদেত্তো জুভেন্টাসের।

স্পোর্তিং লিসবনে খেলার সময় কোনো লিগ শিরোপা জেতার সৌভাগ্য হয়নি ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে আসেন ২০০৩-০৪ মৌসুমে আর প্রথম প্রিমিয়ার লিগ জয় ২০০৬-০৭ মৌসুমে। ২০০৯-১০ মৌসুমে এসেছিলেন রিয়াল মাদ্রিদে, লস ব্লাংকোসদের হয়ে জেতা দুটো লা লিগা শিরোপার প্রথমটি ছিল ২০১১-১২ মৌসুমে। সেদিক থেকে জুভেন্টাসে ভাগ্যটা অনেক ভালো রোনালদোর। প্রথম মৌসুমেই শিরোপার স্বাদ পেতে চলেছেন সিআরসেভেন! জুভেন্টাসের হয়ে সিরি ‘এ’তে ২৬ ম্যাচে ১৯ গোল করেছেন রোনালদো, যা নিঃসন্দেহে বড় ভূমিকা রেখেছে তুরিনের ক্লাবটির শিরোপা জয়ের পথে। লিগে প্রথম দেখায় এসপিএএলের বিপক্ষে ২-০ গোলে জিতেছিল জুভেন্টাস, প্রথম গোলটা করেছিলেন রোনালদো আর পরেরটা মারিও মান্দজুকিচ। এবার যদিও খেলা এসপিএএলের মাঠে। তবে পয়েন্ট টেবিলে ১৬ নম্বর দলের বিপক্ষে জিততে খুব বেশি বেগ পাওয়ার কথা নয় মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রির শিষ্যদের। একই দিনে রোমা খেলবে উদিনেসের বিপক্ষে আর এসি মিলানের প্রতিপক্ষ লািসও।

লা লিগার ভাগ্য নির্ধারিত হয়ে গেছে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে বার্সেলোনার জয়েই। চ্যাম্পিয়নস লিগে ওল্ড ট্র্যাফোর্ড থেকে আত্মঘাতী গোলে জিতে আসা কাতালানদের সামনে লা লিগায় বড়সড় কোনো চ্যালেঞ্জও নেই। ক্রিস স্মলিংয়ের আঘাতে মেসির নাক দিয়ে রক্ত পড়েছে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে, তাই হয়তো এর্নেস্তো ভালভের্দে তাঁকে বিশ্রামই দেবেন এই শনিবারে। নিষেধাজ্ঞা থাকায় লুই সুয়ারেস আর জেরার্দ পিকে দুজনেই থাকবেন বেঞ্চে। কোচ হয়তো ফিরতি লেগের কোয়ার্টার ফাইনালের আগে বিশ্রাম দেবেন সের্হিও বুশকেত্জ ও ইহোর্দি আলবাকে। তাই হুয়েস্কার বিপক্ষে ম্যাচে বার্সেলোনার রিজার্ভ বেঞ্চের খেলোয়াড়দেরই একাদশে দেখতে পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। লা লিগার আকর্ষণ এখন দুই এবং তিন নম্বর জায়গাটা নিয়ে মাদ্রিদের দুই ক্লাবের লড়াই! ২ পয়েন্টের ব্যবধান রিয়াল ও অ্যাতলেতিকোর, আজ ডিয়েগো সিমিওনের দল খেলবে সেল্তা ভিগোর বিপক্ষে আর সোমবার জিদানের দল মাঠে নামবে লেগানেসের বিপক্ষে।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে মূল লড়াইটা লিভারপুল ও ম্যানচেস্টার সিটির। দুই দল গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়নস লিগে দেখেছে ভাগ্যের দুই রূপ। সের্হিও আগুয়েরোর পেনাল্টি মিসে টটেনহামের মাঠে হারতে হয়েছে ম্যানসিটিকে আর লিভারপুল নিজ মাঠে জিতেছে পোর্তোর বিপক্ষে। রবিবার অলরেডদের সামনে চেলসি, অন্যদিকে ম্যানসিটির সামনে ক্রিস্টাল প্যালেস। এই রবিবারেই হয়তো প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষ পর্যায়ে ঘটে যেতে পারে কোনো রদবদল! তার আগে শনিবারে টটেনহাম খেলবে হাডার্সফিল্ডের সঙ্গে। ম্যানসিটির ম্যাচে ১-০ গোলে জয়ের প্রাপ্তির সঙ্গে হ্যারি কেইনকে বাকি মৌসুমটা হারানোর ট্র্যাজেডিও আছে স্পারদের। শেষ চারের লড়াইটায় ক্রমেই কঠিন হচ্ছে সমীকরণ, তাতে জায়গাটা ধরে রাখতে হলে আজ হাডার্সফিল্ডের সঙ্গে হারলে চলবে না টটেনহামের। সঙ্গে প্রার্থনা করতে হবে লিভারপুলের কাছে চেলসির হারও! ছয়ে থাকা ম্যানইউ যদি আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগের জায়গাটা ধরে রাখতে চায়, তাহলে উপায় আছে দুটো। এক চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতা, দুই প্রিমিয়ারে সেরা চারে থাকা। দুটোই সমান কঠিন! প্রথম লেগে ১-০ গোলে পিছিয়ে থাকার পর ন্যু ক্যাম্পে বার্সেলোনার বিপক্ষে জিতে শেষ চারে ওঠা আর ৬১ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের ছয়ে থেকে সেখান থেকে চারে ঢোকা, যেখানে মাঝে বাধা হয়ে আছে টটেনহাম ও আর্সেনাল। তবে দিন শেষে নিজের কাজটা করতে তো হবেই, ওয়েস্ট হ্যামের সঙ্গে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে জয়ের বিকল্প নেই ম্যানইউর কাছেও। স্কাই, বিবিসি

রাজশাহীর সময় ডট কম১৩ এপ্রিল ২০১৯





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com