বুধবার, ১৯ Jun ২০১৯, ১১:২০ পূর্বাহ্ন

কমিটিতে যোগ্যদের স্থান না দেয়ায় হট্টগোল-হাতাহাতি, অবরুদ্ধ গয়েশ্বরপন্থীরা

কমিটিতে যোগ্যদের স্থান না দেয়ায় হট্টগোল-হাতাহাতি, অবরুদ্ধ গয়েশ্বরপন্থীরা

নিউজ ডেস্ক: নতুন কমিটি গঠনের পর ঢাকা জেলা বিএনপির পরিচিতি সভায় পদ বঞ্চিতদের হট্টগোলে পণ্ড হয়েছে সভাটি। পদ-বঞ্চিত ও উপেক্ষিত নেতাদের হট্টগোল ও হাতাহাতির ঘটনায় ঘন্টাখানেক অবরুদ্ধ ছিলেন দলটির গয়েশ্বরপন্থী নতুন নেতা-কর্মীরা। এসময় ‘অবৈধ কমিটি, মানি না মানব না’; ‘দালালরা হুঁশিয়ার সাবধান’ ‘বিএনপিকে ধ্বংসের চক্রান্ত রুখে দাও’সহ বিভিন্ন ধরণের স্লোগান দেয় পদ-বঞ্চিত ও ক্ষুব্ধ নেতারা।

গণমাধ্যমের বরাতে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) রাজধানীর নয়াপল্টনের ভাসানী ভবনে নতুন কমিটির পরিচিতি সভায় এই হট্টগোলের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, গত ২৭ মার্চ মো. সালাউদ্দিনকে সভাপতি ও খন্দকার আবু আশফাককে সাধারণ সম্পাদক করে ২৬৬ সদস্যের ঢাকা জেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করে বিএনপি। অভিযোগ রয়েছে যে, এই কমিটিতে অর্থের বিনিময়ে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের অনুসারীদের স্থান দেওয়া হয়েছে। বাদ পড়েছেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমানের মতো পরীক্ষিত এবং যোগ্য সমর্থকরা। সেই ক্ষোভ ও বঞ্চনার জেরেই নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভায় এ ঘটনার প্রতিবাদ জানান পদ-বঞ্চিত নেতারা। একপর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় আমানের সমর্থকরা ভাসানী ভবনের দরজা ভেঙে ফেলার চেষ্টা করেন। এতে ঢাকা জেলা বিএনপির গয়েশ্বরপন্থী এক নেতা আহত হন।

এই বিষয়ে পদ-বঞ্চিত আমানপন্থী ঢাকা জেলা বিএনপির নেতা জহুর তালুকদার বলেন, এই কমিটিতে যোগ্য নেতাদের স্থান দেয়া হয়নি। অর্থের বিনিময়ে পদ বিক্রি করা হয়েছে। রাজধানীর মতো গুরুত্বপূর্ণ জেলার কমিটিতে দালাল ও চাটুকারদের স্থান দিয়ে দলকে পদলেহী কমিটিতে রূপান্তরিত করা হয়েছে। অর্থ-বিত্তের লোভে যারা দলকে বিক্রি করে তাদের বিএনপি থেকে বিতাড়িত করার সময় এসে গেছে। আমরা এই কমিটি মানি না। পদ বিক্রির জন্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও নিপুন রায়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। বিএনপিকে ধ্বংস করার পাঁয়তারা বন্ধ করতে হবে। বাংলা নিউজ ব্যাংক

রাজশাহীর সময় ডট কম১২ এপ্রিল ২০১৯





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com