বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ১১:৩২ অপরাহ্ন

মোদী বিরোধীতায় প্রথম ভাষণে ছক্কা হাঁকালেন প্রিয়াঙ্কা

মোদী বিরোধীতায় প্রথম ভাষণে ছক্কা হাঁকালেন প্রিয়াঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার পর প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর প্রথম রাজনৈতিক ভাষণ৷ প্রথম ভাষণে কী বলবেন সেই নিয়ে তাকিয়ে ছিল গোটা দেশ ৷ উৎসুক ছিলেন কংগ্রেস কর্মীরা ৷ প্রথম ভাষণে বেকারত্ব থেকে দুর্নীতি, মহিলাদের নিরাপত্তাহীনতা থেকে উগ্র দেশপ্রেম ইত্যাদি নানা ইস্যুতে মোদী সরকারকে আক্রমণে ধার ছিল ঠিকই কিন্তু নতুন কিছু শোনা গেল না তাঁর ভাষণে৷

রাজনীতির আঙিনায় পা রাখার আগেও প্রিয়াঙ্কাকে আমেঠি ও রায়বেরিলির বাইরে প্রচারে দেখা যায়নি৷ সেই তিনি প্রথমবার গুজরাত এলেন৷ যান সবরমতি আশ্রমে৷ গান্ধীনগরের জনসভায় প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘‘গান্ধী আশ্রমে গিয়ে চোখে জল চলে আসে৷ হিংসা ছড়ানো আমাদের দেশের সংস্কৃতি নয়৷ এই দেশের প্রকৃতি হল ভালোবাসা ও সমবেদনা৷ শান্তি ও সংহতি হল এই দেশের ভিত্তি৷ কিন্তু এই সংস্কৃতি এখন ধ্বংসের পথে৷ দেশের বর্তমান অবস্থা দেখে খারাপ লাগে৷’’

খুব সংক্ষেপে হিন্দিতে ভাষণ দেন প্রিয়াঙ্কা৷ ভাষণের প্রতিটি লাইনে ছিল মোদী বিরোধীতা৷ প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘‘প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ক্ষমতায় আসলে সবার অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা পড়বে৷ কোথায় গেল সেই ১৫ লক্ষ টাকা? মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে যে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল তারই বা কী হল? ২ কোটি চাকরি কোথায় গেল?’’ প্রিয়ঙ্কা যখন মোদী সরকারের বিরুদ্ধ সুর চড়াচ্ছেন মঞ্চে তখন বসে রাহুল গান্ধী৷ বহুদিন পর কোনও জনসভায় উপস্থিত থাকতে দেখা গেল সোনিয়া গান্ধীকেও৷ মেয়ের ভাষণ শুনতে আসেন তিনি৷

এই মঞ্চ থেকেই নরেন্দ্র মোদীকে তীব্র আক্রমণ করেন প্রিয়াঙ্কা৷ বলেন, ‘‘প্রতিটি সাংবিধানিক সংস্থাকে নষ্ট করে দেওয়া হচ্ছে৷ সব জায়গায় শুধু হিংসা ছড়ানো হচ্ছে৷ সবাই মিলে দেশকে রক্ষা করতে হবে৷ এগিয়ে আসুন৷ আপনার ভোটই আপনার অস্ত্র৷’’ ভোটারদের তাদের স্বার্থের কথা ভেবে ভোট দেওয়ার পরামর্শ দেন ইন্দিরার নাতনি৷ জানান, ভুল পথে চালিত হবেন না৷ নিজের ভালোমন্দ বিচার করে ভোট দিন৷ ভাবুন কারা চাকরি, মহিলাদের নিরাপত্তা দিতে পারবে৷ ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নিন৷ কলকাতা

 রাজশাহীর সময় ডট কম১২  মার্চ ২০১৯





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com