রবিবার, ১৯ মে ২০১৯, ০৪:৪১ অপরাহ্ন

মোকাব্বিরের পথ পরিষ্কার করতে সুলতান মনসুরকে বহিষ্কারের নাটক করছে গণফোরাম!

মোকাব্বিরের পথ পরিষ্কার করতে সুলতান মনসুরকে বহিষ্কারের নাটক করছে গণফোরাম!

রাজশাহীর সময় ডেস্ক : মোকাব্বির খানের শপথের পথ পরিষ্কার করতে এবং বিএনপিকে শান্ত করতে সুলতান মনসুরকে দল থেকে বহিষ্কার করেছে গণফোরাম। বিএনপির বাধা উপেক্ষা করে নির্বিঘ্নে ২ প্রার্থীর শপথ করিয়ে সংসদে গণফোরামের প্রতিনিধিত্ব টিকিয়ে রাখতে কৌশলে ড. কামাল রাজনৈতিক চাল চালছেন। বিএনপির একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রের বরাতে তথ্যের সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

বিএনপির নয়াপল্টন পার্টি অফিসের রিজভীপন্থী একটি সূত্র বলছে, বিএনপিকে বেকায়দায় ফেলতে একটি পক্ষের ইশারায় ড. কামালের নির্দেশে শপথ নিয়েছেন সুলতান মনসুর। কিন্তু সুলতান মনসুরের সিদ্ধান্ত সম্পর্কে বিএনপি সন্দেহ প্রকাশ করলে ড. কামাল নিশ্চয়তা দিয়েছিলেন যে মনসুর শপথ নেবেন না। এতে কিছুটা স্বস্তি ফিরে আসে বিএনপি শিবিরে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বিএনপির ভয়টিই সত্যি হলো। দেশি-বিদেশি বিভিন্ন সংস্থার চাপ ও কিছু মহলের প্রলোভনে পড়ে গোপনে মনসুর ও মোকাব্বিরকে শপথ নেয়ার বিষয়ে প্রলুব্ধ করতে থাকেন ড. কামাল। কিন্তু এখানেও কৌশল করেন ড. কামাল। তিনি মোকাব্বিরকে শপথ সিদ্ধান্ত থেকে সরিয়ে মনসুরকে বহিষ্কার করে ষোল কলা পূর্ণ করেন।

সূত্র আরো জানায়, মূলত ড. কামালের প্ররোচনায় পড়ে সুলতান মনসুর শপথ গ্রহণ করেন। বিএনপিকে অশান্তিতে ফেলে নিজের ঘর সাজাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন ড. কামাল। কারণ ড. কামাল জানেন বিএনপি ইস্যুটি নিয়ে কিছু দিন হইচই করবে। এরপর তা সহজ হয়ে যাবে। পরবর্তীতে ঠাণ্ডা হয়ে গেলে মাঝখানে মোকাব্বির খানকেও শপথে পাঠাবেন ড. কামাল। এক কথায় বিএনপিকে রাজনৈতিকভাবে সর্বস্বান্ত করে দিলেন ড. কামাল। ড. কামালকে বিশ্বাস করে ঐতিহাসিক ভুল করেছে বিএনপি। বিএনপিকে রাজনীতির মাঠে ৫০ বছর পিছিয়ে দিয়েছেন তিনি। অবশ্য ড. কামালকে প্রভু মেনে ঐক্যফ্রন্টের ত্রাণকর্তা বানানোর জন্য মির্জা ফখরুলদের কঠোর সমালোচনায় মুখর হয়েছেন বিএনপির তৃণমূল নেতৃবৃন্দ।

রাজশাহীর সময় ডট কম – ১০ মার্চ, ২০১৯





© All rights reserved © 2018 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com