বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২০, ১১:১০ অপরাহ্ন

মা ফাতেমার নারীদের উদ্দেশ্যে কিছু উপদেশ

মা ফাতেমার নারীদের উদ্দেশ্যে কিছু উপদেশ

মা ফাতেমার নারীদের উদ্দেশ্যে কিছু উপদেশ
ফাইল ফটো

ধর্ম ডেস্ক : হযরত ফাতেমা ( রাঃ) সারা জাহানের নারীদের পথ প্রদশক। মা ফাতেমার নারীদের উদ্দেশ্যে কিছু উপদেশ।

হযরত ফাতেমা ( রাঃ) এর কতিপয় উপদেশ-

১.দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ খুশুখুজুর সহিত আদায় করবে।
২.রমজান মাসের রোজা কখনো ছাড়বে না।
৩. দৈনিক কুরআন শরীফ তেলাওয়াত করবে।
৪. স্বামীর খেদমতে নিজেকে সদা ব্যাপৃতি রাখবে।
৫. ভোরে স্বামীর পূর্বে নিজে বিছানা ত্যাগ করবে।
৬. স্বামীর খেদমত করে বেহেশত কামাই করবে।
৭.সদা-সর্বদা স্বামীর সাথে হাসি মুখে কথা বলবে।
৮. স্বামীর দুঃখে- কষ্টে ভাগী হবে।
৯. স্বামীর দোষ অন্বেষণ করবে না।
১০.স্বামী মনে কষ্ট পায় এমন কাজ করবে না।
১১.স্বামীর সাদ্যের বাইরে কোন কিছু তার নিকট চাইবে না।
১২.অপ্রয়োজনীয় আবদার করে স্বামীকে কষ্ট দিবে না।
১৩. স্বামীর সামনে নম্র ও কোমল ভাষায় কথা বলবে।
১৪.কোনো বিষয়ে স্বামীর সহিত এক করিবে না।
১৫. কখনও স্বামীর অবাধ্য হইবে না।
১৬. সাধ্যানুযায়ী শ্বশুর – শাশুড়ির খেদমত করবে।
১৭. স্বামীর ডাকা মাএই তার ডাকে সাড়া দিয়ে হাজির হইবে।
১৮.স্বামীর চেয়ে উচ্চস্বরে কথা বলবে না।
১৯.স্বামীকে সর্বদা খুশি রাখতে চেষ্টা করবে।
২০. স্বামী ছাড়া অন্য কারো সহিত হাসিমুখে কথা বলবে না।
২১. স্বামীর ঘরে কখনো জিদ ও হঠকারিতা করবে না।
২২. স্বামীর সাথে কর্কশ ভাষায় কথা বলবে না।
২৩. স্বামীর প্রদত্ত কোন জিনিস পএে অসন্তুষ্ট হবে না।
২৪. স্বামীর মন সন্তুষ্টির জন্য তার ইচ্ছানুযায়ী বেচশ- ভূষা করবে এবং সেজেগুজে থাকবে।
২৫. স্বামীর সকল নিকট আত্মীয়দের সহিত উত্তম ব্যবহার করবে।
২৬. স্বামীর বিনা অনুমতিতে কাউকে কিছু খাওয়াবে না।
২৭. নিন্দুকের নিন্দার প্রতি ভ্রূক্ষেপ করবে না।
২৮. অপরের দোষ তালাশ থেকে বিরত থাকবে।
২৯. সর্বদা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকবে।
৩০.অসুস্থ পীড়িতদের সেবা করবে।
৩১. বেপরোয়াভাবে চলাফেরা করবে না।
৩২. দুঃখীজনের প্রতি দয়া করবে।
৩৩. কখনো কারো গীবত করবে না।
৩৪. কাউকে সামনে ধিক্কার দিবে না।
৩৫. প্রতিবেশীদের সাথে কখনো ঝগড়া করবে না।
৩৬. কখনো আত্মীয়-স্বজনের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করবে না।
৩৭. বিপদে ধৈর্য ধারণ করবে
৩৮. দুঃখ- কষ্টে পড়ে আল্লাহর প্রতি কটোক্তি করবে না।
৩৯. আল্লাহর সাথে কোন কিছুর শিরক করবে না।
৪০. সদা আল্লাহ ও রাসূলের উপর বিশ্বাস রাখবে।
৪১. তাকদীরকে কখনও গালি দিবে না।
৪২. বিসমিল্লাহ বলে সকল কাজ শুরু করবে।
৪৩. প্রত্যেক কাজের শেষে আল্লাহ শোকর আদায় করবে।
৪৪. কখনো আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হবে না।
আল্লাহ আমাদের এগুলো মেনে চলার তৌফিক দিন।আমিন।

রাজশাহীর সময় ডট কম০২ ডিসেম্বর ২০১৯





© All rights reserved © 2020 rajshahirsomoy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com